• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৪ অক্টোবর, ২০১৯, ৮ কার্তিক ১৪২৬
প্রকাশিত: আগস্ট ৭, ২০১৯, ০৮:৩৬ এএম
সর্বশেষ আপডেট : আগস্ট ৮, ২০১৯, ১১:০২ এএম

কোরবানির ঈদ

জমে ওঠার অপেক্ষায় রাজধানীর ২৪টি পশুরহাট

তোফাজ্জল হোসেন
জমে ওঠার অপেক্ষায় রাজধানীর ২৪টি পশুরহাট
রাজধানীতে আসতে শুরু করেছে কোরবানির পশু। ছবিটি মঙ্গলবার (৬ আগস্ট) কমলাপুর হাট থেকে তোলা- কাশেম হারুন

ঈদুল আজহার আর বেশি দিন নেই। তাই এরই মধ্যে রাজধানীর গাবতলী স্থায়ী পশুরহাটসহ মোট ২৪টি হাটে দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে পশু আসতে শুরু করেছে। যদিও এখন পর্যন্ত পশুরহাট জমে উঠেনি, কিন্তু সরগরমও কম নয়। মূলত হাট জমবে ঈদের তিনদিন আগে। 

এবার ঢাকা দুই সিটি করপোরেশনে মোট ২৪টি স্থানে পশুর হাট বসেছে। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের বসেছে ১৪টি অস্থায়ী পশুর হাট। হাটগুলো হলো- উত্তর শাহজাহানপুর খিলগাঁও রেলগেটসংলগ্ন খালি জায়গা, জিগাতলা হাজারীবাগ মাঠ, রহমতগঞ্জ খেলার মাঠ, কামরাঙ্গীরচর, পোস্তগোলা, শ্যামপুর বালুর মাঠ, মেরাদিয়া বাজারসংলগ্ন খালি জায়গা, ৩২ নম্বর ওয়ার্ডের সামসাবাদ মাঠসংলগ্ন খালি জায়গা, গোপীবাগ মাঠ ও কমলাপুর স্টেডিয়ামসংলগ্ন জায়গা, শনির আখড়া ও দনিয়া মাঠসংলগ্ন জায়গা, ধূপখোলা মাঠ, ৪১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউয়ারটেক মাঠ, আমুলিয়া মডেল টাউনের খালি জায়গা এবং আফতাবনগর ইস্টার্ন হাউজিংয়ের লোহারপুলের খালি জায়গা।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের অস্থায়ী ৯টি এবং গাবতলী স্থায়ীহাটসহ মোট ১০টি পশুর হাটগুলো হচ্ছে- গাবতলী পশুর হাট (স্থায়ী), উত্তরা ১৫ নম্বর সেক্টর, কাওলা, ভাটারা, আফতাবনগর তেজগাঁও পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট, বছিলা, মিরপুর ইস্টার্ন হাউজিং,ভাসানটেক ও মিরপুর ডিওএইচএসের পেছনের খালি জায়গা। 

তেজগাঁও পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট সংলগ্ন হাটে  ঘুরে দেখা গেছে, এরই মধ্যে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে পশু আনা হয়েছে।পাবনার বেপারি আবু তাহের জানান, এবার ভালো বিক্রি আশা করছি। গত কয়েক বছর এই পশুরহাট বন্ধ ছিল। এবার বিক্রি ভাল করার আশায় ১০টি গরু এনেছি। দর-দাম প্রসঙ্গে তিনি জানালেন, গরুর দাম লাগালের মধ্যে থাকবে।

কমলাপুর স্টেডিয়াম সংলগ্ন হাটের বেপারি শামসুল আলম বলেন, কিছুদিন পর রাস্তায় যানজট বেড়ে যাবে। এ কারণে আগে ভাগে কয়েকটি গরু নিয়ে চলে এসেছি। সুবিধামতো স্থানে গরু রাখার ব্যবস্থা করলে আরও কয়েকটি গরু এই হাটে আনার ইচ্ছা পোষণ করেন তিনি।

কমলাপুর হাটে যেসব গরু আছে তার বেশিরভাগেরই দাম ৮০ হাজার থেকে দেড় লাখ টাকা পর্যন্ত হবে। মঙ্গলবার এখানে  একটি গরুর মূল্য ১২ লাখ টাকা হাঁকা হচ্ছে। এখন পর্যন্ত এই হাটের সবচেয়ে বড় গরু এটি।

দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে মৌসুমী বেপারিরা বিশেষ করে কুষ্টিয়া, রংপুর, নীলফামারী, কুড়িগ্রাম, সাতক্ষীরা, যশোর, সুনামগঞ্জ, কুষ্টিয়া, মেহেরপুর, মাদারীপুর, রাজবাড়ী, সিরাজগঞ্জ,  দিনাজপুরসহ সীমান্তবর্তী এলাকাগুলো থেকে গরু নিয়ে আসছে।  

ছবি ● কাশেম হারুন

টিএইচ/এসএমএম

আরও পড়ুন