• ঢাকা
  • রবিবার, ০৭ জুন, ২০২০, ২৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
প্রকাশিত: মে ১৬, ২০২০, ০৭:৫১ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মে ১৬, ২০২০, ০৭:৫১ পিএম

ডিএসসিসি

দায়িত্ব নেয়ার পর যা বললেন মেয়র তাপস

জাগরণ প্রতিবেদক
দায়িত্ব নেয়ার পর যা বললেন মেয়র তাপস
ডিএসসিসি মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস ● ফাইল ছবি

পাঁচটি বিষয়কে অগ্রাধিকার দিয়ে কাজ শুরু করবেন বলে জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের সদ্য দায়িত্ব নেয়া মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস। 

শনিবার (১৬ মে) দায়িত্ব গ্রহণের পর এক অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে মেয়র এই তথ্য জানান। তিনি বলেন, মহামারি করোনা, মশা, ময়লা-আবর্জনা, যানজট ও দুর্নীতিকে প্রধান্য দেয়া হবে।

এই কাজগুলো বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে পূর্বঘোষিত ইশতেহার অনুযায়ী নাগরিকদের মৌলিক চাহিদাগুলো পূরণ করবেন বলেও জানান তিনি। এছাড়াও বিদায়ী মেয়র যেসব উন্নয়ন কাজ রেখে গেছেন, সেগুলোর ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে বলে অঙ্গীকার করেন তিনি।

মেয়র বলেন, আইন অনুযায়ী ২৮টি প্রধান কাজসহ সিটি করপোরেশনের বেশ কিছু দায়িত্ব রয়েছে। ইশতেহার অনুযায়ী আগামী ৯০ দিনের মধ্যে সেই দায়িত্বগুলো কীভাবে পূরণ করতে পারি, সেদিকে নজর দেব। যদিও করোনাভাইরাসের এই দুর্যোগে তা অনেকটাই কঠিন।

তাপস আরও বলেন, নির্বাচনি ইশতেহারে পাঁচটি বিষয়কে প্রধান্য দিয়েছি। সেই বিষয়গুলোকে আবার কয়েকভাগে ভাগ করেছি। এখন আমার অগ্রাধিকার কাজগুলো হবে- মহামারি করোনা মোকাবেলা, মশা নিধন, ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার, যানজট দূর করা ও দুর্নীতি রোধ। মেয়র হওয়ার পর প্রধানমন্ত্রী যে নির্দেশনা দিয়েছেন, তা বাস্তবায়ন করার জন্য সেদিকে নজর দেব। গত বছরের মতো এ বছরও যাতে মশার বিস্তার ভয়াবহ না হয়, সেদিক নজর রাখা হবে। আর নাগরিকদের সুবিধার্থে কোনও সিদ্ধান্ত গ্রহণ এবং সেটি বাস্তবায়নে কোনও বাধা মানা হবে না।

মেয়র তাপস বর্তমান করোনা পরিস্থিতিকে সারা বিশ্বের জন্য একটি সংবেদনশীল বিষয় হিসেবে উল্লেখ করে বলেছেন, জীবন ও জীবিকার মধ্যে একটি সুষ্ঠু সমন্বয় করতে হবে। অর্থনীতি এবং জীবিকা সচল রাখতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাস্তবভিত্তিক সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন। এ লক্ষ্যে জাতীয় কমিটি গঠন করেছেন। সরকারি প্রতিষ্ঠান হিসেবে সিটি করপোরেশন গঠিত কমিটির সিদ্ধান্তের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখেই কার্যক্রম চালিয়ে যাবে।

উন্নয়ন কাজ বিষয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বর্তমানে চলমান ভালো কাজের ধারাবাহিকতা চালিয়ে যাব। প্রয়োজনে আরও বেগবান করব।

আসন্ন বর্ষায় জলাবদ্ধতার নিরসনের বিষয়ে তিনি বলেছেন, এটা আমাদের রাস্তাঘাট উন্নয়নের অংশ, তার মাধ্যমেই করা হবে।

এক প্রশ্নের জবাবে মেয়র বলেন, বিভিন্ন মিডিয়া থেকে জানতে পেরেছি আমাদের অনেক দায়-দেনা রয়েছে। দায়-দেনা কতটুকু, তা নিয়ে আগামীকাল বসবো। দেনা নিয়েই তো আমাকে যাত্রা শুরু করতে হচ্ছে।

নির্বাচনি ইশতেহারে দেয়া পাঁচ রূপরেখা বাস্তবায়নে রোববার (১৭ মে) থেকেই কাজে নেমে পড়বেন জানিয়ে বর্তমান রূঢ় বাস্তবতার মধ্যেও তিন মাসের মধ্যে মৌলিক সেবা নগরবাসীর কাছে পৌঁছে দেয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করে করেন মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস।

নির্বাচিত হওয়ার পর করোনাকালে নিজের উপস্থিতি না থাকার বিষয়ে তাপস বলেন, এতো দিন তো দায়িত্বে ছিলাম না। আজ থেকে দেখতে পাবেন। আর ডিএসসিসির জনসংযোগ দফতর রয়েছে। সেখান থেকে তথ্য দেয়া হবে। 

সপ্তাহে একদিন গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে দেখা হতে পারে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। প্রেস ব্রিফিংয়ের সময় মহানগর আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ, করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও বিভাগীয় প্রধান উপস্থিত ছিলেন।

এসএমএম

আরও পড়ুন