• ঢাকা
  • সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৮ আশ্বিন ১৪২৬
প্রকাশিত: জুলাই ৩০, ২০১৯, ১১:২৩ এএম
সর্বশেষ আপডেট : জুলাই ৩০, ২০১৯, ১১:৩৩ এএম

ঈদযাত্রা

কমলাপুরে উপচে পড়া ভিড়, কাউন্টারে টিকিট বিক্রিতে ধীর গতি

তোফাজ্জল হোসেন
কমলাপুরে উপচে পড়া ভিড়,  কাউন্টারে টিকিট বিক্রিতে ধীর গতি


আসন্ন ঈদুল আজহার ট্রেনে অগ্রিম টিকিট সংগ্রহ করতে কমলাপুর রেলস্টেশনে মানুষের উপচে পড়া ভিড়। দ্বিতীয় দিনের মতো ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি চলছে কমলাপুরে। লাইনে দাঁড়িয়ে ঈদে স্বজনদের সাথে আনন্দ ভাগাভাগি করতে বাড়িতে যাওয়ার টিকিট কিনছেন ঘরমুখো যাত্রীরা। 

প্রথম দিনের মত আজ মঙ্গলবারও (৩০ জুলাই) সকাল ৯টায় শুরু হয় টিকিট বিক্রি। অনলাইন ও মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে টিকিট বিক্রি শুরু হয় সকাল ছয়টায়।

রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনের টিকিট কাটতে আসা সালেহা বেগম দৈনিক জাগরণকে বলেন, ভাই ভোরে লাইনে দাঁড়িয়ে চারটি টিকিট পেয়েছি। তবে লাইনে শৃঙ্খলা আছে।

ঈদের টিকিট বিক্রি শুরুর আগে থেকেই কমলাপুরে দেখা যায় যাত্রীদের ভিড়। সকাল ৯টা থেকে টিকিট বিক্রি শুরু হলেও বিভিন্ন রুটের যাত্রীরা অনেক আগে থেকেই লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন।

প্রতিদিন ৩৯টি আন্তঃনগর ট্রেনের প্রায় ২৮ হাজার অগ্রিম টিকিট বিক্রি করবে রেলওয়ে। ফিরতি টিকিট ৫ থেকে ৯ আগস্ট পর্যন্ত দেওয়া হবে। অনলাইনে অর্ধেক ও বাকি অর্ধেক টিকিট রাজধানীর পাঁচটি স্টেশনে বিক্রি করা হবে।

রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ জানায়, ২৯ জুলাই ৭ আগস্টের, ৩০ জুলাই ৮ আগস্টের, ৩১ জুলাই ৯ আগস্টের, ১ আগস্ট ১০ আগস্টের ও ২ আগস্ট ১১ আগস্টের অগ্রিম টিকিট বিক্রি করা হবে।

ফিরতি ৫ আগস্ট ১৪ আগস্টের, ৬ আগস্ট ১৫ আগস্টের, ৭ আগস্ট ১৬ আগস্টের, ৮ আগস্ট ১৭ আগস্টের ও ৯ আগস্ট ১৮ আগস্টের টিকিট বিক্রি করা হবে।

রেলওয়ে কমলাপুর স্টেশন ম্যানেজার আমিনুল ইসলাম দৈনিক জাগরণকে বলেন, প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত টিকিট বিক্রি করা হবে। একজন সর্বোচ্চ ৪টি টিকিট কিনতে পারবেন। কালোবাজারি হাতে টিকিট যাচ্ছে কি ভাবে? এ প্রশ্নের জবাবে আমিনুল ইসলাম বলেন, কেউ লাইনে টিকিট নিয়ে কালোবাজার বিক্রির বিষয়ে অভিযোগ পাওয়া গেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে টিকিট সংগ্রহ করতে এবার জাতীয় পরিচয়পত্র  নেয়া হচ্ছে। তার পরেও কালো বাজারে টিকিট সংগ্রহ করার অভিযোগ আসার কথা নয়।

ঈদুল ফিতরের মতো এবারও রাজধানী ঢাকার পাঁচটি স্থান থেকে অগ্রিম টিকিট বিক্রি হচ্ছে। স্থানগুলো হচ্ছে কমলাপুর স্টেশন, বিমানবন্দর স্টেশন, বনানী স্টেশন, তেজগাঁও স্টেশন এবং ফুলবাড়িয়া স্টেশন। কমলাপুরের মতো এসব স্টেশনেও প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত টিকিট বিক্রি করা হবে।

কমলাপুর রেলস্টেশন থেকে রংপুর, রাজশাহী ও খুলনা অঞ্চলের টিকিট বিক্রি করা হচ্ছে। তবে ধীরগতিতে টিকিট বিক্রি করা হচ্ছে বলে অভিযোগ যাত্রীদের। তারা বলছেন, একটি টিকিট দিতে প্রায় ৮-১০ মিনিট লাগছে।

টিএইচ/আরআই

আরও পড়ুন

Islami Bank