• ঢাকা
  • সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৮ আশ্বিন ১৪২৬
প্রকাশিত: আগস্ট ৩, ২০১৯, ১১:৩০ এএম
সর্বশেষ আপডেট : আগস্ট ৩, ২০১৯, ১১:৩০ এএম

ঈদ সামনে রেখে চলছে লক্কর-ঝক্কর বাস মেরামত

হালিম মোহাম্মদ
ঈদ সামনে রেখে চলছে লক্কর-ঝক্কর বাস মেরামত
মেরামত ও রঙ করা চলছে লক্কর ঝক্কর বাসে


ঈদ সামনে রেখে প্রতিবছরই ফিটনেসবিহীন পুরাতন ও লক্কর-ঝক্কর গাড়ি মেরামতের হিড়িক পড়ে যায় নগরীর ওয়ার্কশপগুলোতে। তখন রঙচটা গাড়িতে দেয়া হয় নতুন রঙের প্রলেপ। এবারও আসন্ন ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে এরই মধ্যে শুরু হয়ে গেছে রঙচঙ মেখে পুরানো গাড়ি রাস্তায় নামানোর সব রকমের প্রস্তুতি। 

সরেজমিনে দেখা গেছে, পুরান গাড়িকে ঝকঝকে তকতকে করে তুলতে ওয়ার্কশপগুলোতে চলছে বিরামহীন কাজ। আগাম টিকিট বিক্রি আর নিরাপদ পথচলা নিশ্চিতে এরই মধ্য সব প্রস্তুতি শেষ করে এনেছে পরিবহন মালিকপক্ষ। যাত্রী পরিবহনে যাতে যানবাহন সঙ্কট না হয়, সে জন্য পুরানো যানবাহনগুলোকে মেরামত করা হচ্ছে। দেয়া হচ্ছে নতুন রঙের প্রলেপ। আর এগুলো হচ্ছে প্রশাসনের চোখে সামনেই।  

ঈদ সামনে রেখে বেড়ে যায় পুলিশের বাড়তি তদারকি বিশেষ করে গাড়ির ফিটনেস ও কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করা।  তাই এবারও সড়কে চলার অনুপযুক্ত গাড়িকে নতুন করতে ব্যস্ত সময় পার করছেন বাস মালিকরা।

রাজধানীর ডেমরার স্টাফ কোয়াটার এলাকায় একাধিক ওয়ার্কশপে দেখা গেল, শহরে কম দূরত্বে চলা গাড়ির সঙ্গে দূরপাল্লার গাড়ি মেরামত করছেন শ্রমিকরা। পুরানো গাড়ির বডিতেই ঘষামাজা বকরে বসানো হচ্ছে নতুন সিট। জানালার গ্লাস, ফুটোফাটা বন্ধ করতে টিন কেটে লাগানো ও রঙের প্রলেপ দেয়া সবই হচ্ছে ওয়ার্কশপগুলোতে।

গাবতলী বাস টার্মিনাল, মহাখালী বাস টার্মিনালের চিপাচাপাতেও রাতে আঁধারে চলছে ফিটনেসবিহীন গাড়ি মেরামতের কাজ।  নগরীর রামপুরা-বনশ্রী-আফতাব নগরের খোলা মাঠেও চলছে রঙ আর মেরামতের কাজ। বাদ নেই উত্তরা-আবদুল্লাহপুর-দিয়া বাড়ি এলাকা। সেখানকার খালি প্লটগুলোতেও চলছে গাড়ির রঙচঙ করার কাজ।

হাইওয়ে পুলিশের ডিআইজি আতিকুল ইসলাম দৈনিক জাগরণকে জানান, সড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক ও দুর্ঘটনামুক্ত রাখতে জন্য সব রকমের প্রস্তুতি নিয়ে রাখা হয়েছে। ঈদ সামনে রেখে পুরান গাড়ি যাতে সড়কে না নামে সেদিকে বিশেষ খেয়াল রাখা হচ্ছে। সড়ক দুর্ঘটনা রোধে ফিটনেসবিহীন কোনও গাড়ি মহাসড়কে চলতে দেয়া হবে না।

এইচএম/এসএমএম

আরও পড়ুন

Islami Bank