• ঢাকা
  • শুক্রবার, ০৫ জুন, ২০২০, ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
প্রকাশিত: মে ১৮, ২০২০, ০৩:০০ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মে ১৮, ২০২০, ০৩:০০ পিএম

ঈদে ঘরমুখো মানুষের ভিড় ঠেকাতে মহাসড়কে কঠোর নজরদারি

জাগরণ ডেস্ক
ঈদে ঘরমুখো মানুষের ভিড় ঠেকাতে মহাসড়কে কঠোর নজরদারি
ছবি ইউএনবি’র সৌজন্যে

ঈদের ছুটি এবং চলমান সাধারণ ছুটিতে ঢাকা ছেড়ে যাওয়া ও প্রবেশ বন্ধে পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজির আহমেদের নির্দেশনা অনুযায়ী সোমবার (১৮ মে) সকাল থেকে দেশের গুরুত্বপূর্ণ মহাসড়কগুলোতে কঠোর নজরদারি শুরু করা হয়েছে।

ইউএনবির গাজীপুর প্রতিনিধি জানান, মানুষ ও যানবাহন নিয়ন্ত্রণের জন্য শহরের চারটি গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে চেকপোস্ট স্থাপন করা হয়েছে।

জরুরি সেবা ব্যতীত অন্য সব যানবাহন ফেরত পাঠানো হচ্ছে বলে জানিয়েছেন গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার আনোয়ার হোসেন।

ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের আনারকলি ক্রসিং এবং টঙ্গীর চন্দনা চৌরাস্তায় দু’টি চেকপোস্ট স্থাপন করা হয়েছে। অন্য দু’টি চেকপোস্ট রয়েছে গাজীপুর-টাঙ্গাইল সড়কের কোনাবাড়ি কলেজ গেট এলাকায় এবং টঙ্গী-ঘোড়াশাল সড়কের মীরেরবাজার এলাকায়।

করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণের ঝুঁকি ঠেকাতে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের গোলড়া বাসষ্ট্যান্ডে চেকপোস্ট বসিয়ে সকাল থেকে ঈদে ঘরমুখো দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের মানুষকে থামিয়ে দিচ্ছে জেলা পুলিশ।

ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুট অভিমুখে প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাস, পিকআপ ভ্যানে করে আসা যাত্রীদের থামিয়ে দিয়ে উল্টো পথে ফিরিয়ে দেয়া হচ্ছে।

গাজীপুরের মতো এখানেও জরুরি ও পচনশীল পন্যবোঝাই ট্রাক, অ্যাম্বুলেন্স, মরদেহবাহী গাড়ী ব্যতীত সব যানবাহন ফেরত পাঠানো হচ্ছে।

মানিকগঞ্জের পুলিশ সুপার রিফাত রহমান শামীম বলেন, গোলড়া বাসস্ট্রান্ডে চেকপোস্টে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে মানুষ ছুঁটে আসছেন। তাদের এখানে আটকিয়ে দেয়া হচ্ছে এবং ফেরত যাওয়ার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করা হচ্ছে।

জরুরি পরিষেবায় নিয়োজিত যানবাহন ছাড়া অন্য কোনও যানবাহন মানিকগঞ্জের ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক দিয়ে চলাচল করতে দেয়া হচ্ছে না বলেও জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

এর আগে, ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ও সরকার ঘোষিত বর্ধিত ছুটি উদযাপনের জন্য সাধারণ মানুষকে গ্রামের বাড়ির না যাওয়ার পরামর্শ দিয়ে সবাইকে সরকারি নির্দেশনা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান আইজিপি বেনজীর আহমেদ।

রোববার (১৭ মে) মাঠ পর্যায়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে এক ভিডিও কনফারেন্সে অংশগ্রহণ করে এ আহ্বান জানান।

আইজিপি বলেন, ঈদ উপলক্ষে ও সরকার ঘোষিত বর্ধিত ছুটি উদযাপনের জন্য অনেকেই গ্রামের বাড়ির উদ্দেশে রওনা হচ্ছেন। এটি কোনওভাবেই হতে দেয়া যাবে না।

এসএমএম

আরও পড়ুন