• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ০৯ জুলাই, ২০২০, ২৫ আষাঢ় ১৪২৭
প্রকাশিত: মে ২৯, ২০২০, ০৮:২২ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মে ২৯, ২০২০, ০৮:২২ পিএম

ভাড়া বাড়ানোর শর্তে চালু হচ্ছে লঞ্চ ও গণপরিবহন

জাগরণ প্রতিবেদক
ভাড়া বাড়ানোর শর্তে চালু হচ্ছে লঞ্চ ও গণপরিবহন
ফাইল ছবি

ভাড়া বাড়ানোর শর্তে স্বাস্থ্যবিধি মেনে রোববার (৩১ মে) থেকে যাত্রীবাহী লঞ্চ ও সোমবার (১ জুন) থেকে গণপরিবহন চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে মালিক পক্ষ।

শুক্রবার (২৯ মে) বিকালে বিআরটিএ ও বিআইডব্লিউটিএ কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলাদা বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়। তবে ভাড়া পুনঃনির্ধারণের বিষয়ে ৩০ মে (শনিবার) সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হবে।

ভোক্তা অধিকার সংগঠন ক্যাব বলছেন, বাড়তি ভাড়া যাত্রীদের কাছ থেকে নেয়া যৌক্তিক হবে না।

করোনা পরিস্থিতির কারণে দুই মাসের বেশি সময় ধরে বন্ধ গণপরিবহন। স্বাস্থ্যবিধি মেনে গণপরিবহন চালানো যাবে- সরকারের এমন সিদ্ধান্তের পর বাস মালিক-শ্রমিক নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বসে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়। বৈঠকে ভিডিও কনফারেন্সর মাধ্যমে যুক্ত হন মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

প্রায় দুই ঘণ্টা বৈঠক শেষে সোমবার (১ জুন) থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাস চালুর সিদ্ধান্ত হয়। তবে বাস মালিকরা ভাড়া বাড়ানোর শর্ত দিয়েছেন। সে বিষয়ে শনিবার (৩০ মে) চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন সচিব।

পরিবহন সচিব নজরুল ঈসলাম বলেন, যে গাড়িতে ৫০ সিট ছিল, সেই ৫০ সিটের ধারণ ক্ষমতার ওপরে দাম নির্ধারণ ছিল, সেখানে সঙ্গত কারণে যাত্রী থাকবে।

বিআইডব্লিটিএর সঙ্গেও বৈঠক করেছেন লঞ্চ মালিক ও শ্রমিকরা। তারাও ভাড়া বাড়ানোর শর্তে রোববার (৩১ মে) থেকে যাত্রীবাহী লঞ্চ চালুর সিদ্ধান্তের কথা জানান।

বিআইডব্লিটিএ চেয়ারম্যান গোলাম সাদেক বলেন, রোববার থেকে যেভাবে আমাদের নৌপরিবহন চালু ছিল সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক সেটা চালু রাখবে।

করোনা পরিস্থিতির সুযোগে বাড়ানো বাড়তি ভাড়া যাত্রীদের কাছ থেকে না নেয়ার দাবি জানিয়েছে ভোক্তাদের অধিকার সংগঠন-ক্যাব।

ক্যাব সভাপতি গোলাম রহমান বলেন, ভাড়ায় যদি বাড়ায় সরকার সেটা ভর্তুকি হিসেবে দিতে পারে। যারা যাত্রী তাদের কাছ থেকে ভাড়া বেশি নেয়া উচিত হবে না।

সড়ক ও নৌপথের যাত্রী ও শ্রমিকরা স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে পর্যবেক্ষণ করা হবে বলেও জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

এসএমএম