• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৯, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
প্রকাশিত: এপ্রিল ২১, ২০১৯, ০৮:৩১ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ২২, ২০১৯, ০২:৪০ এএম

 নড়াইলে সৎ বাবার বিরুদ্ধে মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ

নড়াইল সংবাদদাতা
 নড়াইলে সৎ বাবার বিরুদ্ধে মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ

নড়াইলের লোহাগড়ায় সৎ বাবার বিরুদ্ধে তার মেয়েকে (৮) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় লোহাগড়া থানায় মামলা দায়ের করা হলেও পুলিশ ওই ধর্ষককে আটক করতে পারেনি।

এ ঘটনায় রোববার (২১ এপ্রিল) দুপুরে ওই শিশু জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নয়ন বড়ালের আদালতে জবানবন্দী দিয়েছে। গত শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) দুপুরে উপজেলার সত্রহাজারী গ্রামে শিশু ধর্ষণের এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, প্রায় ১০ বছর পূর্বে নড়াইল সদর উপজেলার পলইডাঙ্গা গ্রামের পিকুল কাজীর সঙ্গে লোহাগড়া উপজেলার সত্রহাজারী গ্রামের সামসেল শেখের মেয়ে রোজিনা বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের সংসারে একটি কন্যা সন্তান জন্ম নেয়। পরে রোজিনার সঙ্গে স্বামী পিকুল কাজীর বিচ্ছেদ হয়। কিছুদিন পর লোহাগড়ার সত্রহাজারী গ্রামের সাইফার শেখের ছেলে সুজন শেখের সঙ্গে পুনরায় রোজিনার বিয়ে হয়। তারপর থেকেই রোজিনার মেয়ে তার নানাবাড়ি থেকে সত্রহাজারী সরকারিপ্রাথমিক বিদ্যালয়ে ২য় শ্রেণিতে পড়াশুনা করে আসছিল। গত শুক্রবার দুপুরে ওই শিশুটি বাড়ির পার্শ্বে বাঁশবাগানে জ্বালানী কুড়াতে গেলে সৎ বাবা সুজন শেখ জোর পূর্বক ধর্ষণ করে। এ সময় শিশুর চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে আসলে লম্পট সুজন পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় শনিবার রাতেই শিশুর মা বাদি হয়ে লোহাগড়া থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও লোহাগড়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মিল্টন কুমার দেবদাস জানান, নড়াইল সদর হাসপাতালে শনিবার শিশুটির ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। রোববার দুপুরে ওই শিশু জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নয়ন বড়ালের আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দী দিয়েছে। তিনি আরও বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে যার নং- ১৯ তারিখ ২০ এপ্রিল ২০১৯।

লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রবীর কুমার বিশ্বাস ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ধর্ষককে আটকে পুলিশের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। দ্রুত সময়ের মধ্যেই তাকে আইনের আওতায় আনা হবে।

একেএস