• ঢাকা
  • রবিবার, ২৫ আগস্ট, ২০১৯, ১০ ভাদ্র ১৪২৬
Bongosoft Ltd.
প্রকাশিত: জুলাই ১৮, ২০১৯, ০৫:৫৩ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জুলাই ১৮, ২০১৯, ০৬:৫৩ পিএম

সোনারগাঁয়ে এক পরিবারের ১০ জনকে কুপিয়ে জখম

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) সংবাদদাতা
সোনারগাঁয়ে এক পরিবারের ১০ জনকে কুপিয়ে জখম
প্রতিপক্ষের হামলায় এক পরিবারের গুরুতর আহত ৪ জন - ছবি : জাগরণ

ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার নুনেরটেক পশ্চিমপাড়া গ্রামে বুধবার (১৭ জুলাই) রাতে একই পরিবারের ১০ সদস্যকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে মারাত্মক জখম করেছে প্রতিপক্ষ। এ ঘটনায় সোনারগাঁ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী এলাকাবাসী জানান, উপজেলার বারদী ইউনিয়নের নুনেরটেক পশ্চিমপাড়া গ্রামের আমির আলীর পরিবারের সঙ্গে প্রতিবেশী আব্দুল আজিজের পরিবারের দীর্ঘদিন বিরোধ চলে আসছিল। বুধবার আমির আলীর ছেলে ওয়াছকুরনী ইসলাম ক্রিকেট খেলার সময় তার বল আজিজের বাড়িতে চলে যায়। এতে আব্দুল আজিজ ক্ষিপ্ত হয়ে সাইদুল ইসলামকে মারধর করেন।

পরে আমির আলী তার ছেলেকে মারধরের ঘটনায় স্থানীয় মাতব্বরের কাছে বিচার চাওয়ায় আব্দুল আজিজের নেতৃত্বে খান বাহাদুর, মাজহারুল ইসলাম, করিম আলী, মনির হোসেন, মোসলেম মিয়া, মেহেদী হাসান, আবুল হোসেন, আলী আকবর, মোক্তার হোসেনসহ ২০-২৫ জনের একটি দল দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আমির আলীর পরিবারের ওপর হামলা চালায়। তাদের হামলায় একই পরিবারের হালিমুন, আমির আলী, সাইদুল ইসলাম, ওয়াছকুরনী, বাহাউদ্দিন, সালাউদ্দিন, শিশু জান্নাত, সমলা বেগম, দিল মোহাম্মদ ও শাহারুন মারাত্মক আহত হন। আমির আলীর বাড়ির ১০ সদস্যকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে মারাত্মকভাবে জখম করার পর তাদের বাড়িঘর ভাঙচুর, নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুটপাট করে প্রতিপক্ষ। 

এদিকে আহতদের হাসপাতালে নেওয়ার সময় নদীর মাঝপথে নৌকায় আব্দুল আজিজের লোকজন আবারো হামলা চালায়। আহতদের সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।  এ ঘটনায় আমির আলী বাদী হয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

আহত আমির আলী বলেন, ‘তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আজিজের নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা আমাদের পরিবারের ১০ জনকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করেছে।’

অন্যদিকে আব্দুল আজিজ বলেন, ‘আমাদের পক্ষের লোকজনও কিছু আহত হয়েছে।’

সোনারগাঁ থানার ওসি মনিরুজ্জামান বলেন, এ বিষয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ নেওয়া হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এনআই

আরও পড়ুন

Islami Bank