• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২২ নভেম্বর, ২০১৯, ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
প্রকাশিত: আগস্ট ৭, ২০১৯, ০৯:২৪ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : আগস্ট ৭, ২০১৯, ০৯:২৪ পিএম

কুতুবদিয়ায় জাহাজডুবি, ২১ জন উদ্ধার

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি
কুতুবদিয়ায় জাহাজডুবি, ২১ জন উদ্ধার
ছবি : প্রতীকী

কক্সবাজার জেলার কুতুবদিয়ায় বঙ্গোপসাগরে দুটি সিমেন্ট ক্লিংকারবাহী লাইটারেজ জাহাজডুবির ঘটনা ঘটেছে। এমভি টিটু ১৮ এবং এমভি ১৯ নামের জাহাজ দুটি থেকে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ২১ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে। বুধবার (৭ আগস্ট) দুপুরের দিকে কুতুবদিয়ায় এ ঘটনা ঘটে।

জাহাজ দুটি আবুল খায়ের গ্রুপের শাহ সিমেন্টের ক্লিংকার নিয়ে ঢাকার দিকে যাচ্ছি।

শিপিং এজেন্ট টিলমন্ডের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জাহিদ হোসেন জানান, সিমেন্ট ক্লিংকার নিয়ে সাগরে অবস্থান করছিল জাহাজ দুটি। ঝড়ের কবলে পড়ে কাত হয়ে যায় জাহাজের এক পাশ। দুর্ঘটনার পর নৌবাহিনীর জাহাজ দুর্জয়, শৈবাল, সুরভি ও সোয়াডস উদ্ধারে নেমে ২১ জন নাবিককে উদ্ধার করে। উদ্ধারে অংশ নেয় মালিকপক্ষের হেলিকপ্টারও।

কোস্টগার্ড চট্টগ্রাম অঞ্চলের অপারেশন অফিসার লে. কমান্ডার মো. সাইফুল ইসলাম জানান, সাগরে ডুবে যাওয়া জাহাজের নাবিকদের উদ্ধার অভিযান চালছে। এখন পর্যন্ত ২১ জনকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে।

বিআইডব্লিউটিএ চট্টগ্রাম এর উপ-পরিচালক মো. সেলিম বলেন, কুতুবদিয়ার কাছাকাছি গভীর সমুদ্রে বড় জাহাজ থেকে ক্লিংকারবোঝাই হয়ে জাহাজ দুটি নারায়ণগঞ্জ ও মুন্সীগঞ্জ যাচ্ছিল। ৩ নম্বর সতর্ক সংকেতের মধ্যে সাগর উত্তাল থাকায় প্রচণ্ড ঢেউয়ে একটি জাহাজের তলা ফেটে যায় এবং অপর একটি জাহাজের হ্যাজ ভেঙে পড়ে। পরে জাহাজ দুটি ঠেঙ্গারচর এলাকায় ডুবে যায়।

জাহাজ দুটির প্রতিটিতে ১২ জন করে ক্রু ছিলেন জানিয়ে তিনি বলেন, এমভি-টিটু-১৮ এর সকল ক্রুকে উদ্ধার করা হয়েছে। অন্যদের উদ্ধারের কাজ চলছে।

এনআই

আরও পড়ুন