• ঢাকা
  • সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৮ আশ্বিন ১৪২৬
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৯, ১২:০৬ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৯, ১২:০৬ পিএম

ঘুষের ভিডিও ভাইরাল

শাহজাদপুরের সেই সাব-রেজিস্ট্রার বরখাস্ত, ৩ সহযোগী সাসপেন্ড   

সিরাজগঞ্জ সংবাদদাতা
শাহজাদপুরের সেই সাব-রেজিস্ট্রার বরখাস্ত, ৩ সহযোগী সাসপেন্ড   
ঘুষের টাকা গুনে গুনে নেয়া সেই উপজেলা সাব-রেজিস্ট্রার সুব্রত কুমার দাস

ঘুষের টাকা গুনে গুনে নেয়ার ভিডিওচিত্র ভাইরালসহ নানা অভিযোগে অবশেষে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরের আলোচিত সেই উপজেলা সাব-রেজিস্ট্রার সুব্রত কুমার দাস সাময়িক বরখাস্ত হয়েছেন। একইসঙ্গে তার তিন সহযোগীকে সাসপেন্ড করা হয়েছে।

সোমবার (৯ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন জেলা রেজিস্ট্রার আবুল কালাম মো. মঞ্জুরুল। সাসপেন্ড হওয়া কর্মচারীরা হলেন- সাব-রেজিস্ট্রার সুব্রত কুমার দাসের ঘুষ বাণিজ্যের সহযোগী ওই অফিসের মহরার আব্দুস সালাম, নকলনবিশ সুমন আহম্মেদ ও দৈনিক মজুরি চুক্তিতে অফিস সহায়ক আনিছুর রহমান।

এর আগে, ঘুষের টাকা গুনে গুনে নেয়ার ভিডিওচিত্র ভাইরাল, ভুক্তভোগীর লিখিত অভিযোগ এবং গণমাধ্যমে এসবের সংবাদ দেখে জেলা রেজিস্ট্রার আবুল কালাম মো. মঞ্জুরুল ইসলাম গত ২৮ আগস্ট এর তদন্ত শুরু করেন। গত ৮ কর্মদিবসের তদন্তে জমিদাতা ও দলিল গ্রহিতাদের সমস্যায় ফেলে অবাধে ঘুষ-বাণিজ্য, দালালচক্রের দৌরাত্ম্য বৃদ্ধিতে সহায়তা, জমির প্রকৃত মূল্য কম দেখিয়ে রাজস্ব ফাঁকি, অসাধু দলিল লেখকের সঙ্গে ঘুষের টাকা ভাগবাটোয়ারা, ঊর্ধ্বতনদের অনুমতি ছাড়া দলিল সম্পাদন বন্ধ রেখে সরকারি অফিসে সংবাদ সম্মেলন ও সরকারি গাছ বিক্রির অভিযোগে সাব-রেজিস্ট্রার সুব্রত কুমার দাসসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে বিভাগীয় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে রোববার ঢাকার ইন্সপেক্টর জেনারেল অব রেজিস্ট্রার (আইজিআর) কার্যালয়ে প্রতিবেদন পাঠান জেলা রেজিস্ট্রার। তদন্তে অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় আইজিআর খান মোহাম্মদ আব্দুল মান্নান সাব-রেজিস্ট্রার সুব্রত কুমার দাসকে সাময়িক বরখাস্ত করেন। একইসঙ্গে তার তিন সহযোগীকে সাসপেন্ড করা হয়। 

এ বিষয়ে আইজিআর খান মোহাম্মদ আব্দুল মান্নান বলেন, সাব-রেজিস্ট্রার সুব্রত কুমার দাসের পার পাওয়ার সুযোগ নেই। শিগগিরই তিনি শাস্তি পাবেন।

এফসি

আরও পড়ুন

Islami Bank