• ঢাকা
  • সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৯, ০৯:৩৬ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৯, ০৯:৩৬ পিএম

প্রেমিকের হাতে লাঞ্ছিত, অপমানে স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা

গাইবান্ধা সংবাদদাতা
প্রেমিকের হাতে লাঞ্ছিত, অপমানে স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে প্রেমিকের হাতে লাঞ্ছিত হওয়ার অপমান সইতে না পেরে ইয়াসমিন আক্তার (১৪) নামের এক স্কুলছাত্রী আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, পার্শ্ববর্তী গ্রাম নওহাটি চাচিয়া গ্রামের হোসেন আলীর ছেলে আলামিন মিয়ার (২০) সাথে ইয়াসমিনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল।

মঙ্গলবার (১০ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ইয়াসমিনের বাড়িতে বেড়াতে যায় আলামিনের মামাতো ভাই মিজানুর রহমান। এ সময় বাড়ির পার্শ্ববর্তী একটি ব্রিজে বেড়াতে যায় মিজানুর, ইয়াসমিন ও তার জ্যেঠাতো বোন মারজিয়া। এ খবর শুনে প্রেমিক আলামিন কয়েকজন সঙ্গীসহ এসে মিজানুর ও ইয়াসমিনকে মারধর করে।

এদিকে এই অপমানের যন্ত্রণা সইতে না পেরে ইয়াসমিন সবার অজান্তে মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে বাড়ির সামনের আমগাছে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে।

নিহত ইয়াসমিন আক্তার উপজেলার তারাপুর ইউনিয়নের চাচিয়া মীরগঞ্জ গ্রামের ইয়াসিন আলীর মেয়ে ও চাচিয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

এ ঘটনায় মেয়ের বাবা বাদী হয়ে আলামিনসহ ৬ জনকে আসামি করে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

থানার অফিসার ইনচার্জ এস এম আব্দুস সোবহানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি। পরে এসআই তাজুল ইসলাম মুঠোফোনে জাগরণকে আত্মহত্যার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মামলার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারে তৎপর রয়েছে পুলিশ। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এনআই

আরও পড়ুন

Islami Bank