• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২২ নভেম্বর, ২০১৯, ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
প্রকাশিত: অক্টোবর ১৪, ২০১৯, ০৫:১৬ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : অক্টোবর ১৪, ২০১৯, ০৫:১৬ পিএম

টাঙ্গাইলে টাকার লোভে মা-মেয়েকে খুন, আসামি গ্রেফতার

টাঙ্গাইল সংবাদদাতা
টাঙ্গাইলে টাকার লোভে মা-মেয়েকে খুন, আসামি গ্রেফতার
আসামি রাইজ উদ্দিন- ছবি : জাগরণ

টাঙ্গাইল পৌরসভার ভাল্লুককান্দীতে ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা নারী ও তার চার বছরের শিশু মেয়েকে গলা কেটে হত্যা মামলার আসামি রাইজ উদ্দিনকে (৩৬) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় রাইজ উদ্দিন নগদ টাকার লোভে এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে। রাইজ উদ্দিন একই এলাকার শুকুম উদ্দিনের ছেলে। সোমবার (১৪ অক্টোবর) দুপুরে টাঙ্গাইলে পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় এ তথ্য জানান। 

পুলিশ সুপার বলেন, গ্রেফতারকৃত রাইজ উদ্দিন নিহতের স্বামী আল আমীনের ঘনিষ্ট বন্ধু। আল আমীন বিকাশের ব্যবসা করতেন। এ কারণে তার বাসায় নগদ টাকা রাখতেন। রাইজ উদ্দিন তা জেনে টাকা নেয়ার জন্যই এই হত্যাকাণ্ড ঘটায়। রাইজ উদ্দিন ঘটনার দিন রাত্রি সাড়ে ৮টার দিকে আল আমীনের বাসায় গিয়ে প্রথমে তার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী লাকী বেগমকে ছুরিকাঘাত করে। পরে ঘটনাটি তার মেয়ে আলিফা দেখে ফেলায় তাকেও গলা কেটে হত্যা করে এবং ঘরে থাকা নগদ প্রায় আট লাখ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায় রাইজ উদ্দিন। 

গ্রেফতারকৃত আসামির স্বীকারোক্তি মোতাবেক তার বাড়ির মুরগির খোয়াড় থেকে পুরো টাকা ও হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ছোঁড়া এবং তার রক্তমাখা লুঙ্গি-শার্ট উদ্ধার করা হয়েছে। সে পুলিশের কাছে পুরো ঘটনার হত্যার কথা স্বীকার করেছে। সোমবার তাকে আদালতে পাঠানো হয়। 

উল্লেখ্য, গত ১৩ অক্টোবর (রোববার) রাতে টাঙ্গাইল পৌর শহরের ভাল্লুককান্দী এলাকায় সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা নারী ও তার চার বছরের শিশু মেয়েকে গলা কেটে ও কুপিয়ে হত্যা করা হয়। নিহত লাকীর সদর উপজেলার হুগড়া ইউনিয়নের রামনগর গ্রামের হাসমত আলীর মেয়ে। রোববার নিহত লাকীর বাবা বাদী হয়ে টাঙ্গাইল মডেল থানায় অজ্ঞাতদের আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

কেএসটি
 

আরও পড়ুন