• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২২ নভেম্বর, ২০১৯, ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
প্রকাশিত: নভেম্বর ৯, ২০১৯, ১১:১১ এএম
সর্বশেষ আপডেট : নভেম্বর ৯, ২০১৯, ১১:১১ এএম

বরগুনায় আশ্রয়কেন্দ্রের মানুষের জন্য খিচুরি রান্না হচ্ছে  

বরগুনা সংবাদদাতা
বরগুনায় আশ্রয়কেন্দ্রের মানুষের জন্য খিচুরি রান্না হচ্ছে  
বরগুনার ম্যাপ

বরগুনাসহ সাতটি উপকূলীয় জেলার জন্য ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত জারি করার পরে মানুষ আশ্রয়কেন্দ্রে যেতে শুরু করেছে। বরগুনা জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ জানিয়েছেন, বরগুনায় ৩৪১টি সাইক্লোন শেল্টারসহ ৫০৯টি ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত রয়েছে। যেখানে ৫ লক্ষাধিক লোক আশ্রয় নিতে পারবে। যারা আশ্রয় কেন্দ্রে যাচ্ছে, তাদের জন্য দুপুরে খাবারের জন্য চলছে খিচুরি রান্না। 

জেলা প্রশাসক আরও জানিয়েছেন, দুর্যোগ মোকাবিলায় ইতোমধ্যেই মন্ত্রণালয় থেকে ১০ লাখ টাকা, গবাদী পশুর খাদ্যের জন্য ১ লাখ টাকা, শিশুখাদ্যের জন্য ১ লাখ টাকা, ২শ মেট্রিক টন চাল ও ৩৫০ প্যাকেট খাবার পেয়েছেন। তারা আরও ২ হাজার প্যাকেট শুকনা খাবার মজুদ রেখেছেন। 

ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচির উপজেলা টিম লিডার জাকির হোসেন মিরাজ জানিয়েছেন, জেলায় ৬ হাজার ৩৩০ জন স্বেচ্ছাসেবক মাঠে রয়েছেন। জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা স্বপন কুমার ব্রহ্ম জানিয়েছেন, জেলার ৩৭ কিলোমিটার বেরিবাঁধ ঝূকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। 

বিআইডব্লিউটিএর পোর্ট অফিসার মামুনুর রশিদ জানিয়েছেন, বরগুনা থেকে সকল রুটের নৌচলাচল বন্ধ রয়েছে। বরগুনা জেলা ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি গোলাম মোস্তফা চৌধুরী জানিয়েছেন, বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরতে যাওয়া বেশির ভাগ ট্রলারই পাথরঘাটা মৎস্য বন্দরে ফিরে এসেছে। বঙ্গোপসাগরে যারা ছিলেন তারাও ট্রলার নিয়ে নিরাপদ আশ্রয়ে চলে এসেছে।

বিএস