• ঢাকা
  • সোমবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৯, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
প্রকাশিত: নভেম্বর ১৯, ২০১৯, ১০:২৩ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : নভেম্বর ১৯, ২০১৯, ১০:৩৬ পিএম

লবণ নিয়ে দেশব্যাপী লঙ্কাকাণ্ড

মোহাম্মদ নূরুল ইসলাম
লবণ নিয়ে দেশব্যাপী লঙ্কাকাণ্ড
গুজব প্রতিরোধে হ্যান্ডমাইক নিয়ে বাজারে গুরুদাসপুরের ওসি

দেশব্যাপী লবণ নিয়ে শুরু হয়েছে লঙ্কাকাণ্ড। লবণের দাম বেড়ে যাচ্ছে বলে গুজব ছড়ানোতে দেশের বিভিন্ন খুচরা ও পাইকারি বাজারে লবণের দোকানে ক্রেতারা ভিড় জমাচ্ছেন। হাটবাজারের পাশাপাশি পাড়া-মহল্লার দোকানগুলোতেও মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড় লক্ষ করা গেছে। সব জায়গায়ই বেশি দামে লবণ বেচাকেনার ধুম পড়েছে।

তবে একে গুজব বলে অভিহিত করে লবণের মূল্য বৃদ্ধি ও গুজব ঠেকাতে মাঠে নেমেছে প্রশাসন। কোথাও কোথাও ভ্রাম্যমাণ আদালত জেল-জরিমানা করেছেন। গুজব প্রতিরোধে অনেক স্থানেই হ্যান্ডমাইকিং করা হয়েছে। তার পরও বেশি দামে লবণ কিনতে ক্রেতারা হুমড়ি খেয়ে পড়েন। অনেক হাটবাজার লবণশূন্য হয়ে পড়েছে বলেও জানা গেছে।

দৈনিক জাগরণের জেলা ও উপজেলা সংবাদদাতাদের পাঠানো খবর :

হঠাৎ লবণশূন্য শরণখোলার হাট-বাজার

লবণশূন্য শরণখোলা বাজার  -  ছবি : জাগরণ

শরণখোলা (বাগেরহাট) সংবাদদাতা জানান, মঙ্গলবার বিকেল থেকে দাম বাড়ার গুজবে শরণখোলায় লবণ কেনার হিড়িক পড়েছে। এই সুযোগে পাইকারি দোকানেও দাম বাড়িয়ে দিয়েছে কেজিতে পাঁচ থেকে দশ টাকা। মঙ্গলবার সন্ধ্যার মধ্যেই লবণশূন্য হয়ে পড়ে উপজেলার হাট-বাজারগুলো। খবর পেয়ে গুজবে কান না দিতে প্রশাসনের পক্ষ হতে মাইকিং করা হচ্ছে। বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখতে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

গুরুদাসপুর গুজব প্রতিরোধে হ্যান্ডমাইক নিয়ে বাজারে ওসি

গুরুদাসপুর (নাটোর) সংবাদদাতা জানান, সারা দেশের ন্যায় নাটোরের গুরুদাসপুরেও লবণের দাম বাড়ানো নিয়ে গুজব ছড়ানো হয়েছে। গুজব প্রতিরোধ করতে হ্যান্ডমাইক হাতে নিয়ে উপজেলার বিভিন্ন বাজারে জনসচেতনতামূলক বক্তব্য দেন গুরুদাসপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মোজাহারুল ইসলাম। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলা সদর থেকে শুরু করে বিভিন্ন ইউনিয়নের বাজারে গিয়ে তিনি সাধারণ মানুষ এবং ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে বক্তব্য দেন।

নেত্রকোনায় দুই ব্যবসায়ীকে জরিমানা

নেত্রকোনা সংবাদদাতা জানান, চড়া দামে লবণ বিক্রি এবং গুজব সৃষ্টির অভিযোগে মঙ্গলবার কেন্দুয়া উপজেলা সদরের এক ডিলারকে ৭০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। অপরদিকে খালিয়াজুরী সদরের এক ব্যবসায়ীকে আটক করে মুচলেকা আদায় করা হয়েছে। জানা গেছে, কেন্দুয়া উপজেলা সদরের ডিলার বাচ্চু মিয়া মঙ্গলবার স্থানীয় বাজারে লবণের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টির পাঁয়তারাসহ চড়া দামে লবণ বিক্রি করেন। ফলে এলাকায় লবণ নিয়ে গুজব এবং লবণ কেনার হিড়িক ছড়িয়ে পড়ে। এমন খবর পয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আল ইমরান রহুল আমিন এবং ওসি মোহাম্মদ রাশেদুজ্জামান উপজেলা সদরের বাজারে অভিযান চালান। এ সময় অভিযোগের সত্যতা প্রমাণিত হওয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে লবণের ডিলার বাচ্চু মিয়ার কাছ থেকে ৭০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন।

ত্রিশালে ১২০ টাকা দরে লবণ বিক্রি, ১০ হাজার টাকা জরিমানা

ময়মনসিংহ সংবাদদাতা জানান, ময়মনসিংহের ত্রিশালে চিকন লবণ ১২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। এ অভিযোগে মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) বিকেলে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নেতৃত্বে ত্রিশাল বাজারের মোদক পট্টি এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। এ সময় মেসার্স অর্পিতা এন্টারপ্রাইজের প্রোপ্রাইটর আতিকুল ইসলামকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

হবিগঞ্জে লবণ নিয়ে লঙ্কাকাণ্ড, ৪ জনের জেল-জরিমানা

হবিগঞ্জ সংবাদদাতা জানান, অতিরিক্ত মূল্যে লবণ বিক্রির অপরাধে ৪ জনকে কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এর মধ্যে দুই ব্যক্তিকে ১০ দিনের কারাদণ্ড ও দুজনকে অর্থদণ্ড দেয়া হয়। মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) দিবাগত রাত ১টার দিকে হবিগঞ্জের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইয়াছিন আরাফাত রানা এই দণ্ডাদেশ প্রদান করেন। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন শহরের রাজনগর এলাকার ব্যবসায়ী মো. আব্দুল কাদির নানু, বাতিরপুর এলাকার কানাই দাসের ছেলে সুরঞ্জিত দাস, চৌধুরীবাজার এলাকার রাজকুমার রায়ের ছেলে মিঠুন রায় ও নোয়াহাটি এলাকার রবিন্দ্র পালের ছেলে রঞ্জিত পাল।

হাজীগঞ্জে লবণ গুজব ঠেকাতে মাঠে প্রশাসন

হাজীগঞ্জে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান  -  ছবি : জাগরণ

চাঁদপুর সংবাদদাতা জানান, চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ বাজারে লবণের মূল্য বৃদ্ধি ও গুজব ঠেকাতে মাঠে নেমেছে প্রশাসন। মঙ্গলবার বিকালে হাজীগঞ্জ উপজেলা নিবাহী কর্মকর্তা বৈশাখী বড়ুয়ার নেতৃত্বে বাজার মনিটরিং করা হয়। ওই সময় তিনি লবণের মূল্য বৃদ্ধি ও মূল্য তালিকা প্রদর্শন না করার অপরাধে ২ ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানকে মোট ৯ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

চাটমোহরে এক লাফে কেজিতে বেড়েছে ১২ টাকা

চাটমোহর (পাবনা) সংবাদদাতা জানান, গুজবের কারণে পাবনার চাটমোহরে ‘খোলা’ লবণ বাড়তি দামে বিক্রির অভিযোগ উঠেছে। এক দিনের ব্যবধানে কেজিতে দাম বেড়েছে ন্যূনতম ১২ টাকা। লবণ নিয়ে ক্রেতা-বিক্রেতাদের মধ্যে  রীতিমতো শুরু হয়েছে লঙ্কাকাণ্ড। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, সরকারিভাবে লবণের দাম বাড়ানো হয়নি। চাটমোহর ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি জানিয়েছেন, বিষয়টি তার জানা নেই। জানা গেছে, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে লবণের দাম নিয়ে গুজব ছড়ানোর পরই উপজেলার বিক্রেতারা চড়া দামে লবণ বিক্রি শুরু করেন।

জয়পুরহাটে ৩ গোডাউন সিলগালা, ৪ ব্যবসায়ীকে জরিমানা

জয়পুরহাট সংবাদদাতা জানান, পর্যাপ্ত লবণ থাকা সত্ত্বেও গুজবের কারণে লবনের বাজারে আতঙ্কে ছড়িয়ে পড়েছে। লবণের দাম কয়েকগুণ বেড়ে গেছে এই খবরে জয়পুরহাটের বিভিন্ন স্থানে ক্রেতারা লবণের দোকানে ভিড় জমিয়েছে। লাইন ধরে তাদেরকে লবণ কিনতেও দেখা গেছে। বেশি দামে লবণ বিক্রি হচ্ছে এই খবর ছড়িয়ে পড়লে জেলা প্রশাসক সাথে সাথে গোটা জেলার বিভিন্ন স্থানে পুলিশ ম্যাজিস্ট্রেট নামিয়ে তল্লাশি অভিযান শুরু করেন। তল্লাশি অভিযানে ক্ষেতলালে ৩টি গোডাউনে লবণ মজুদ থাকায় মালিককে না পেয়ে গোডাউন সিলগালা করে দেওয়া হয়েছে। জয়পুরহাট সদরে ৪টি দোকান মালিককে প্রায় সাড়ে ১২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে এবং ১৭ বস্তা লবণ জব্দ করা হয়েছে।

ঠাকুরগাঁওয়ে ৩ ব্যবসায়ীকে কারাদণ্ড

ঠাকুরগাঁও সংবাদদাতা জানান, লবণ সংকটের গুজব ছড়িয়ে অতিরিক্ত মূল্যে লবণ বিক্রির অভিযোগে ঠাকুরগাঁওয়ে ৩ ব্যবসায়ীকে কারাদণ্ড এবং ২ ব্যবসায়ীকে আর্থিক জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। মঙ্গলবার দুপুরে ঠাকুরগাঁও শহরের পুরাতন বাসস্ট্যান্ড এলাকায় অভিযান চালিয়ে সিরাজ স্টোরের মালিক সিরাজুল ইসলাম ও আইয়ুব স্টোরের মালিক আইয়ুব আলীকে ৫০ হাজার  টাকা করে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। অনাদায়ে ৭ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সোহাগ চন্দ্র সাহ।
অন্যদিকে বিকেলে শহরের পশ্চিম মুন্সিপাড়া এলাকার সাইদুল হকের ছেলে সিরাজুল ইসলাম (২৬), শহরের সত্যপীর ব্রিজ এলাকার ফারাজ আলীর ছেলে নবাব আলী (৩২) ও সদর উপজেলার সালন্দর ইউনিয়নের বরুনাগাঁও গ্রামের আবুল কালামের ছেলে মাসুদকে (২৮) অতিরিক্ত দামে লবণ বিক্রির সময় ভ্রাম্যমাণ আদালত  হাতেনাতে আটক করে। এ সময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল্লাহ আল মামুন ওই ৩ ব্যবসায়ীকে ১৫ দিনের করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন। পুলিশ তাদের জেলহাজতে পাঠিয়েছে।

বগুড়ায় বাজারে বাজারে ইউএনওর অভিযান

বগুড়ায় ইউএনওর নেতৃত্বে বাজারে অভিযান  -  ছবি : জাগরণ

বগুড়া সংবাদদাতা জানান, লবণের মূল্য বৃদ্ধির গুজবে বিভিন্ন বাজারে অভিযান চালিয়েছেন ইউএনও। লবণের মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে এমন গুজব ছড়িয়ে পড়লে সাধারণ জনগণ লবণ কিনতে দোকানে দোকানে ভিড় জমায়। এমন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে মঙ্গলবার জেলার নন্দীগ্রাম উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আখতার অভিযান চালান। তিনি ব্যবসায়ীদের গুদাম তল্লাশি ছাড়াও বিভিন্ন দোকানে লবণের খুচরা ও পাইকারি মূল্যতালিকা ঝোলানোর নির্দেশ দেন।

হিলিতে চার দোকানিকে ১ লাখ টাকা জরিমানা

হিলিতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমান  -  ছবি : জাগরণ

হিলি (দিনাজপুর) সংবাদদাতা জানান, লবণের দাম বাড়ছে এমন গুজবে হিলি বাজারে লবণ কেনার হিড়িক পড়েছে। ১ ঘণ্টার মধ্যে কেজিতে ৫০ থেকে ৬০ টাকা দামে লবণ বিক্রি হওয়ায় দাম নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য হাকিমপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুর রাফিউল আলম বাজার মনিটরিংয়ের জন্য ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে ৪ দোকানদারের নিকট থেকে ১ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করেন।

নাটোরে দুই ব্যবসায়ীকে জরিমানা

নাটোর সংবাদদাতা জানান, নাটোরের সিংড়ায় লবণ নিয়ে গুজব ছড়িয়ে বেশি দামে বিক্রির দায়ে দুই ব্যবসায়ীকে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুশান্ত কুমার মাহাতো বিভিন্ন বাজারে অভিযান চালিয়ে দুই ব্যবসায়ীকে মোট ৮ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

মোংলায় বেশি দামে লবণ বেচাকেনার ধুম

মোংলায় ভ্রাম্যমাণ আদালত  -  ছবি : জাগরণ

মোংলা (বাগেরহাট) সংবাদদাতা জানান, দাম বৃদ্ধির গুজবে মোংলায় চলছে লবণ বেচাকেনার ধুম। লবণ কিনতে মঙ্গলবার বিকেল থেকে পৌর শহরের দোকানপাটগুলোতে ছিল উপচে পড়া ভিড়। ক্রেতাদের ভিড় থাকায় দোকানিরা বেশি দামে বিক্রি করছেন লবণ। তবে নিম্ন-মধ্যবিত্তদেরই বেশি দেখা গেছে লবণ কিনতে। এদিকে গুজবে কান না দেয়ার জন্য বিকেল থেকে শহরজুড়ে মাইকিং করা হচ্ছে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. রাহাত মান্নান বলেন, গুজব ঠেকাতে প্রচারণা চালানো হচ্ছে। এছাড়া যেসব দোকানি বেশি দামে লবণ বিক্রি করবেন এবং মজুদ করে সংকট সৃষ্টি করবেন তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ধামইরহাটে লবণের দোকানে উপচে পড়া ভিড়

ধামইরহাটে লবণের দোকানে সাধারণ মানুষের উপচে পড়া ভিড়  -  ছবি : জাগরণ

নওগাঁ সংবাদদাতা জানান, নওগাঁর ধামইরহাটে হঠাৎ গুজব ওঠায় লবণের দোকানে ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড় দেখা দিয়েছে। জানা গেছে, মঙ্গলবার দুপুর থেকে উপজেলার সর্বত্র লবণ সংকট এবং দাম বৃদ্ধি পাবে এই মর্মে গুজব ছড়িয়ে পড়ে। তথ্যটি সঠিক কি না তা না জেনে মানুষ মুঠোফোনসহ বিভিন্নভাবে বিভিন্ন জনের কাছে বার্তা পাঠায়। দুপুর ২টার পর থেকে মানুষ দল বেঁধে পাইকারি ও খুচরা লবণের দোকানের ভিড় জমায়।

বরিশালে মূল্যবৃদ্ধির গুজবে লবণ কেনার হিড়িক

বরিশালে লবণ কিনতে মানুষের ভিড়  -  ছবি : জাগরণ

বরিশাল সংবাদদাতা জানান, মূল্য বৃদ্ধির গুজবে বরিশালে লবণ কেনার হিড়িক পড়েছে। মজুদ বাড়াতে শুরু করেছেন মুদি দোকানি ও পাইকাররা। ক্রেতার চাপে কেউ কেউ রাখছেন অতিরিক্ত মূল্যও। মঙ্গলবার বিকেলে বরিশাল নগরীর বাজার রোডের পাইকারি ও পার্শ্ববর্তী খুচরা বাজার পরিদর্শনকালে এমন চিত্রই দেখা গেছে। তবে লবণের মূল্য বৃদ্ধির আগাম খবর গুজব বলে জানিয়েছেন বরিশালের জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান। এমনকি হঠাৎ করেই মূল্য বৃদ্ধির খবরে হতবাক স্থানীয় লবণ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান মালিকরাও।

গুজবে কোটালীপাড়ায় লবণ ক্রয়ের হিড়িক

কোটালীপাড়ায় লাইন ধরে লবণ ক্রয়  -  ছবি : জাগরণ

কোটালীপাড়া (গোপালগঞ্জ) সংবাদদাতা জানান, ‘২০০ টাকা হবে লবণের কেজি’ এমন গুজাবে কোটালীপাড়া উপজেলার ঘাঘর বাজারে লবণ ক্রয়ের হিড়িক পড়েছে। ঘাঘর বাজারের অর্ধশতাধিক পাইকারি ও খুচরা দোকানে লাইন দিয়ে খুচরা বিক্রেতা ও ক্রেতাদের লবণ ক্রয় করতে দেখা গেছে। দাম নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বাজার মনিটরিংয়ে নামতে হয়েছে।

চুয়াডাঙ্গায় লবণ নিয়ে গুজবে লঙ্কাকাণ্ড

চুয়াডাঙ্গা সংবাদদাতা জানান, চুয়াডাঙ্গায় লবণ নিয়ে লঙ্কাকাণ্ড শুরু হয়েছে। শহরের বিভিন্ন খুচরা ও পাইকারি বাজারে লবণের দাম বেড়ে যাচ্ছে বলে এমন গুজব ছড়ানোতে বিভিন্ন এলাকা থেকে খুচরা ব্যবসায়ীরা চুয়াডাঙ্গার পাইকারি দোকানগুলোতে ভিড় জমাচ্ছেন।
লবণ নিয়ে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৭টার দিকে শহরের বড় বাজার থেকে দুজনকে আটক করেছে পুলিশ।

লক্ষ্মীপুরে দুই ব্যবসায়ীর ৫২ হাজার টাকা জরিমানা

লক্ষ্মীপুর সংবাদদাতা জানান, লক্ষ্মীপুর জেলাসহ ৫ উপজেলাজুড়ে লবণের দাম বাড়ার গুজব উঠেছে। সংবাদ পাওয়ার সাথে সাথে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ক্রেতা ও বিক্রেতাদের সতর্ক করা হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রায়পুর শহরের মধ্য বাজারে অতিরিক্ত মূল্যে লবণ বিক্রির অভিযোগে ব্যবসায়ী রবিন ভুঁইয়াকে ৫০ হাজার ও আলমগীর হোসেন নামের আরেক ব্যবসায়ীকে দুই হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সরিষাবাড়ীতে ৫ জন আটক

সরিষাবাড়ীতে আটককৃতদের থানায় নেয়া হচ্ছে  -  ছবি : জাগরণ

সরিষাবাড়ী (জামালপুর) সংবাদদাতা জানান, জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে লবণ সংকটের গুজব রটনার অভিযোগে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শিহাব উদ্দিন আহমেদের নির্দেশে ৫ জনকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার বিকেলে পৌরসভার আরামনগর বড় বাজার এলাকার বাঁধন স্টোরের সামনে থেকে তাদের আটক করা হয়েছে বলে জানা গেছে। আটককৃতরা হলো সরিষাবাড়ী উপজেলা সাতপোয়া গ্রামের করিম শেখের ছেলে শামীম উদ্দিন (২১), পোগলদিঘা ইউনিয়নের সাইঞ্চের পাড় গ্রামের মৃত রশিদ মিয়ার ছেলে আকাশ (১৮), সাইঞ্চের পাড় গ্রামের মৃত আ. হাই এর ছেলে রাফি মিয়া (১৬), ডোয়াইল ইউনিয়নের চর বালিয়া গ্রামের হাসমত আলীর ছেলে সাগর (১৭) ও মহাদান ইউনিয়নের মনির উদ্দিনের ছেলে শিফাত মিয়া (১৬)।

এনআই

আরও পড়ুন