• ঢাকা
  • সোমবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৯, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
প্রকাশিত: ডিসেম্বর ২, ২০১৯, ০৪:১৬ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : ডিসেম্বর ২, ২০১৯, ০৪:১৬ পিএম

আ.লীগের সম্মেলনে ছাত্রলীগের সংঘর্ষ

মৌলভীবাজার সংবাদদাতা 
আ.লীগের সম্মেলনে ছাত্রলীগের সংঘর্ষ

মৌলভীবাজার সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন চলাকালীন সময়ে ছাত্রলীগের দুগ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। সোমবার (২ ডিসেম্বর) দুপুরে পৌর জনমিলন কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

স্লোগান দেয়াকে কেন্দ্র করে পৌর মেয়র মো. ফজলুর রহমান ও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক কামাল হোসেনের বলয়ের দুটি গ্রুপের মধ্যে চেয়ার ছোড়াছুড়ি, হাতাহাতি ও ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া হয়। এসময় এক গ্রুপের নেতাকর্মীরা অন্য গ্রুপের নেতাকর্মীদের দিকে চেয়ার ছোড়ে মারে। এতে দু’পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি ও সম্মেলন স্থলের জানালার গ্লাস ভাঙার ঘটনা ঘটে।

সকাল থেকে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের সাথে যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা আসতে থাকে সম্মেলন স্থল পৌর জনমিলন কেন্দ্রে। বেলা বাড়ার সাথে সাথে জনমিলন কেন্দ্রে বাড়তে থাকে নেতাকর্মীদের ভিড়। 

দুপুরে সম্মেলনের প্রথম অধিবেশনে বক্তব্য শুরু হওয়ার পর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা স্লোগান দিতে শুরু করে। বেশ কয়েকবার মঞ্চ থেকে তাদের স্লোগান দিতে বারণ করা হয়। কিন্তু তারা স্লোগান দেয়া বন্ধ করেনি। কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সদস্য অধ্যাপক রফিকুর রহমান তার বক্তব্য শুরু করলে সম্মেলনের প্রধান অতিথি কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেনের সামনে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। আহমদ হোসেন সংঘর্ষ বন্ধ করার জন্য বার বার আহবান জানান। সংঘর্ষ বন্ধ না করলে সম্মেলন স্থল ত্যাগ করার ঘোষণা দেন তিনি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন- কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মিছবাহ উদ্দিন সিরাজ, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আজিজুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সংসদ সদস্য নেছার আহমদ, সাধারণ সম্পাদক মিছবাহুর রহমান, যুগ্ম সম্পাদক মো. ফজলুর রহমান ও কামাল হোসেন। 

পরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী পরিস্থিতি শান্ত করলে বক্তারা তাদের বক্তব্য শুরু করেন।

কেএসটি
 

আরও পড়ুন