• ঢাকা
  • সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১ পৌষ ১৪২৬
প্রকাশিত: ডিসেম্বর ২, ২০১৯, ০৪:৩৭ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : ডিসেম্বর ২, ২০১৯, ০৪:৩৭ পিএম

বিষ প্রয়োগে ৭০ লাখ টাকার মাছ নিধন 

মোরেলগঞ্জ (বাগেরহাট) সংবাদদাতা 
বিষ প্রয়োগে ৭০ লাখ টাকার মাছ নিধন 

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মৎস্য ঘেরে বিষ প্রয়োগ করে প্রায় ৭০ লাখ টাকার বিভিন্ন প্রজাতির মাছ মেরে ফেলেছে প্রতিপক্ষের লোকেরা। 

সোমবার (১ ডিসেম্বর) সকাল থেকেই উপজেলার বহরবুনিয়া ইউনিয়নের পূর্ব বহরবুনিয়া গ্রামের ৩শ বিঘা নিয়ে গ্রামবাসীদের যৌথ মালিকানাধীন ওই ঘেরটিতে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ মরে ভেঁসে ওঠে। এতে প্রায় ৭০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেছেন ক্ষতিগ্রস্ত মৎস্য চাষি। 

ক্ষতিগ্রস্ত মৎস্য চাষিরা জানায়, গত ১৫-১৬ বছর ধরে গ্রামের ৬০টি পরবিার যৌথভাবে ৩শ বিঘার ওই ঘেরে রুই, কাতলা, বাগদা চিংড়ি, পতাড়ি, টেংরা, তারিয়াল মাছসহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছ চাষ করে আসছেন। কিন্তু ঘেরের মালিকানা না পেয়ে শুরু থেকেই এলাকার একটি কুচক্রি মহল বিরোধিতা করে আসছিলেন। ধরাণা করা হচ্ছে ঘেরটিতে ভাল চাষ আর অধিক মুনফা হওয়ায় ইর্ষান্বিত হয়ে রোববার গভীর রাতে বিষ প্রয়োগ করেছে ঘেরের বিরোধিতাকারিরা। 

তারা জানান, প্রতি বছর ঘের থেকে প্রায় ৬০ থেকে ৭০ লাখ টাকার মাছ বিক্রি হয়। এ বছর ঘেরটিতে ভাল চাষ হয়েছে এবং মুনফাও ভাল পাওয়ার কথা ছিল। আর মাত্র ১৫ দিন পর মাছ বিক্রি করতেন তারা। 

এদিকে, ঘেরে বিষ প্রয়োগের ঘটনার প্রতিবাদ করায় ঘেরের অংশিদার ও স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়াম্যান রিপন তালুকদারের ওপর হামলা করেছে প্রতিপক্ষ। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে। 

আহত ইউপি চেয়ারম্যান রিপন তালুকদার মুঠোফোনে জানান, ঘেরে বিষ প্রয়োগের ঘটনা প্রতিবাদ করলে জাকির ফরাজীর নেতৃত্বে তার ভাই ছগির ফরাজীসহ ৭/৮ জনের একটি সংঘবদ্ধদল আমাকে আক্রমণ করে। এতে আহত হন তিনি। 

তিনি জানান, বিষয়টি তাৎক্ষণিক প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের অবহিত করেছি। হামলার ঘটনায় অভিযোগ দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। 

কেএসটি

আরও পড়ুন