• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২১, ১৫ মাঘ ১৪২৭
প্রকাশিত: ডিসেম্বর ২১, ২০১৯, ০১:৩৬ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : ডিসেম্বর ২১, ২০১৯, ০১:৪১ পিএম

চুয়াডাঙ্গায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড

চুয়াডাঙ্গায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড
চুয়াডাঙ্গায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১০.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড

চুয়াডাঙ্গায় অব্যাহত রয়েছে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ। এ জেলায় গত দু’দিন ধরে মৃদু থেকে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ অব্যাহত রয়েছে। চুয়াডাঙ্গায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১০ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। এতে সাধারণ মানুষের জীবনযাপনে ভোগান্তির সৃষ্টি হয়েছে।

ভোর থেকে ঘন কুয়াশা আর দমকা হাওয়ায় রাস্তাঘাট এবং বাজারে মানুষের উপস্থিতি ছিল একেবারেই কম। বেলা সাড়ে ১২ টা পর্যন্ত সূর্যের দেখা পাওয়া যায়নি। সেই সঙ্গে হিম বাতাস প্রবাহিত অব্যাহত রয়েছে। 

শুক্রবার (২০ ডিসেম্বর) এ জেলায় দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৮.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঘন কুয়াশা আর হিমেল হাওয়ায় কমছে না শীতের তীব্রতা। দিনের তাপমাত্রা কিছুটা সহনীয় হলেও হ্রাস পাচ্ছে রাতের তাপমাত্রা। শীতল বাতাস বাড়িয়ে দিচ্ছে মানুষের ভোগান্তি। সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগে পড়েছেন খেটে খাওয়া ছিন্নমূল মানুষ। খড়কুটো জ্বালিয়ে শীত নিবারণ করতে দেখা গেছে এসব মানুষদের।

এদিকে, ঘন কুয়াশার কারণে মাঠে লাগানো ধানের বীজতলা নষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে ধারণা করছে কৃষি বিভাগ।

এছাড়া প্রয়োজনীয় কাজ ছাড়া ঘর থেকে বের হচ্ছে না সাধারণ মানুষ। সড়কেও যানবাহন ও লোকজনের উপস্থিতি তুলনামূলক কম দেখা গেছে। রাস্তায় হেড লাইট জ্বালিয়ে চলাচল করছে যানবাহন। 

চুয়াডাঙ্গা আবহাওয়া অফিসের পর্যবেক্ষক সামাদুল হক জানান, পরপর তিন দিন দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে চুয়াডাঙ্গায়। কিছুদিন পর চুয়াডাঙ্গায় তাপমাত্রা আরো নিচে নেমে আসতে পারে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে আরও কয়েকদিন সময় লাগতে পারে।

একেএস
 

আরও পড়ুন