• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৯ ফাল্গুন ১৪২৬

জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা

মুজিববর্ষ
প্রকাশিত: জানুয়ারি ২১, ২০২০, ০৭:১০ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জানুয়ারি ২১, ২০২০, ০৭:১০ পিএম

লক্ষ্মীপুরে খুঁটিতে বেঁধে কিশোরকে নির্যাতন, ২ জন কারাগারে

লক্ষ্মীপুর সংবাদদাতা
লক্ষ্মীপুরে খুঁটিতে বেঁধে কিশোরকে নির্যাতন, ২ জন কারাগারে
গলায় জুতার মালা ও ঝাড়ু বেঁধে খুঁটিতে বেঁধে রাখা হয় কিশোর নিরবকে  -  ছবি : জাগরণ

লক্ষ্মীপুর শহরের ২ নং ওয়ার্ড জালালিয়া মাদ্রাসা এলাকায় নিরব হোসেন (১৫) নামের এক কিশোরকে গলায় জুতার মালা পরিয়ে বিদ্যুতের খুঁটিতে বেঁধে নির্যাতনের ঘটনায় মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) দুপুরে রাশেদ ও ইসমাইল নামের দুজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। নিরবের নানি আলেয়া বেগম বাদী হয়ে ৪ জনকে আসামি করে সদর থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করেন।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আজিজুর রহমান মিয়া সাংবাদিকদের জানান, মামলায় ৪ জনকে আসামি করা হয়েছে। পুলিশ দুজনকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে। অপর আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান চলছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, টাকা চুরির অভিযোগ এনে শিশু নিরব হোসেনকে আটক করে দোকানদার রাশেদ। পরে রোববার (১৯ জানুয়ারি) রাতে নির্যাতনের পর তাকে সদর থানা পুলিশের হাতে সোপর্দ করা হয়। কিন্তু অজ্ঞাত কারণে পুলিশের কাছ থেকে ছাড়িয়ে এনে স্থানীয় প্রভাবশালীরা স্থানীয় চামড়ার দোকানে সালিস বৈঠকের আয়োজন করেন। এতে স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলরসহ মাতব্বররা ওই কিশোরকে দোষী সাব্যস্ত করে জরিমানা করেন ৩০ হাজার টাকা।

কিন্তু এতিম ওই কিশোরের দায়িত্ব নিতে রাজি হননি নানা ও নানি। এতেই হট্টগোল শুরু হয়ে আবারও মারধর করা হয় তাকে। পরে তাকে গলায় জুতার মালা ও ঝাড়ু বেঁধে বিদ্যুতের পিলারের সাথে বেঁধে রাখা হয়।

এমন ছবি বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়। জেলা পুলিশ সুপার ড. এএইচএম কামরুজ্জামান বিষয়টি জানতে পেরে দ্রুত  ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সদর থানাকে নির্দেশ দেন। পরে পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত থাকায় দুজনকে গ্রেফতার করে।

এনআই

আরও পড়ুন