• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৯ আশ্বিন ১৪২৭
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২, ২০২০, ০৭:৫২ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারি ২, ২০২০, ০৭:৫২ পিএম

ট্রেনের কেবিনে আপত্তিকর অবস্থায় নারীসহ অধ্যক্ষ আটক

জামালপুর সংবাদদাতা
ট্রেনের কেবিনে আপত্তিকর অবস্থায় নারীসহ অধ্যক্ষ আটক
তিস্তার কেবিনে অসামাজিক কার্যকলাপের অভিযোগে আটক কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুস সালাম  -  ছবি : জাগরণ

জামালপুরে চলন্ত তিস্তা ট্রেনের কেবিনে এক নারীর সাথে অসামাজিক কার্যকলাপের অভিযোগে কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুস সালামকে (৫০) আটক করেছে রেলওয়ে পুলিশ।

আটককৃত আব্দুস সালাম জেজেকেএম স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ। তিনি জামালপুর শহরের বেলটিয়ার সিরাজুল হকের ছেলে।

জামালপুর রেলওয়ে থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাপস চন্দ্র পণ্ডিত জানান, তিস্তা ট্রেনটি  জামালপুর থেকে ছাড়ার কিছুক্ষণ পর ট্রেনের যাত্রীরা কর্তব্যরত পুলিশের কাছে অভিযোগ করেন, একটি কেবিনে অসামাজিক কার্যকলাপ চলছে। এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে কেবিনের দরজায় কড়া নাড়া হলে দরজা খোলেন অধ্যক্ষ। ৩ সিটের কেবিনে সেই নারীসহ তারা দুজনই ছিলেন। দরজা খোলার পর পুলিশকে দেখে অধ্যক্ষের হাতে থাকা একটি কনডম তিনি মুখে পুরে নেন। এরপর তল্লাশি করা হলে পকেট থেকে একটি কনডম পাওয়া যায়।

এরপর রেল পুলিশ তাদের আটক করে দেওয়ানগঞ্জ রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়িতে নেয়। পরে আটককৃতদের ফিরতি তিস্তা এক্সপ্রেস ট্রেনে এনে জামালপুর জিআরপি থানায় আনা হয়। এ বিষয়ে রেলের আইন অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান ওসি তাপস চন্দ্র পণ্ডিত।

তবে অধ্যক্ষ আব্দুস সালাম দাবি করেন, ঘটনাটি পুরোটাই সাজানো। তাকে ফাঁসানোর জন্য পূর্বপরিকল্পিতভাবে একটি পক্ষ এই চক্রান্ত করেছে।

এনআই

আরও পড়ুন