• ঢাকা
  • সোমবার, ০৩ আগস্ট, ২০২০, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৭
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২০, ০৯:৪০ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২০, ০৯:৪০ পিএম

ছাত্রীদের যৌন নিপীড়নের অভিযোগে শিক্ষককে বদলি

নেত্রকোনা সংবাদদাতা
ছাত্রীদের যৌন নিপীড়নের অভিযোগে শিক্ষককে বদলি
ছাত্রীদের যৌন নিপীড়নের অভিযোগে বদলির আদেশপ্রাপ্ত শিক্ষক রশিদ আহমেদ তালুকদার  -  ছবি : জাগরণ

সামাজিক মাধ্যমে ছাত্রীদের যৌন নিপীড়নের ঘটনায় অভিযুক্ত নেত্রকোনা সরকারি মহিলা কলেজের পদার্থবিজ্ঞানের সহকারী অধ্যাপক রশিদ আহমেদ তালুকদারকে পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া সরকারি কলেজে তাৎক্ষণিক বদলি (স্ট্যান্ড রিলিজ) করা হয়েছে।

রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মো. ফরহাদ হোসেন স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) এই আদেশ দেয়া হয়েছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ সরকারি কলেজ-১ অধিশাখা পেডে জানানো হয়, বৃহস্পতিবারের (১৩ ফ্রেব্রুয়ারি) মধ্যে বর্তমান কর্মস্থল হতে অবমুক্ত হবেন রশিদ আহমেদ। অন্যথায় একই তারিখ অপরাহ্নে তাৎক্ষণিকভাবে অবমুক্ত মর্মে গণ্য হবেন। বুধবার বিকালে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে এই নোটিশ প্রকাশ করা হয়।

এর আগে সোমাবার (১০ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ছাত্রীদের ফেসবুক মেসেঞ্জারে অভিযুক্ত শিক্ষকের পাঠানো আপত্তিকর লেখার বিভিন্ন স্ক্রিনশর্ট ভাইরাল হয়। বিষয়টি ছাত্র-অভিভাবকদের নজরে এলে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন এলাকাবাসী। পরে সবার উপস্থিতিতে কলেজের অধ্যক্ষ বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন এক ছাত্রী। এ সময় এলাকাবাসী অভিযুক্ত ওই শিক্ষককে জিজ্ঞাসাবাদ করলে ঘটনার সত্যতা মেলে। পরে তিনি হাত জোড় করে ক্ষমা চান।

অভিযোগে জানা যায়, অভিযুক্ত শিক্ষক বেশ কয়েক মাস ধরে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছাত্রীদের ফেসবুক মেসেঞ্জারে আপত্তিকর লেখা পাঠাচ্ছিলেন। পরে ১০ ফেব্রুয়ারি এক ছাত্রী আপত্তিকর এ লেখার প্রতিবাদ করার পর একে একে বেরিয়ে আসে অন্যদের ইনবক্সের নানা কনভারসেশন।

অভিযোগের প্রাথমিক প্রমাণ পাওয়ায় কলেজের পরিবেশ সুষ্ঠু রাখতে কলেজ কর্তৃপক্ষ অভিযুক্ত শিক্ষকের এ অপকর্মের বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানায়। পরে ওই তাৎক্ষণিক বদলির আদেশ আসে বলে জানান নেত্রকোনা সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর সিরাজুল ইসলাম।

এনআই

আরও পড়ুন