• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৯ আশ্বিন ১৪২৭
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২০, ০৫:০৪ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২০, ০৫:০৪ পিএম

উখিয়ায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ উপজাতি ইয়াবা ব্যবসায়ী নিহত

উখিয়া (কক্সবাজার) সংবাদদাতা
উখিয়ায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ উপজাতি ইয়াবা ব্যবসায়ী নিহত

কক্সবাজারের উখিয়ায় বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদস্যদের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এক উপজাতি মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) ভোর পাঁচটার দিকে উখিয়ার বালুখালী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে ১ লাখ ৪০ হাজার ইয়াবা, দেশে তৈরি একটি বন্দুক ও তিনটি গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার ভোর পাঁচটার দিকে উখিয়ার পালংখালী ইউনিয়নের বালুখালী এলাকার নাফ নদীর শাখা বালুখালী খালের কাঁকড়া ব্রিজসংলগ্ন বেড়িবাঁধে এ ঘটনা ঘটে।

‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত মংকিউ তংচঙ্গা বান্দরবান জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়নের বাইশফাঁড়ি এলাকার চাচিংহ্লা তংচঙ্গার ছেলে। বিজিবির কক্সবাজার ৩৪ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আলী হায়দার আজাদ আহমেদ এ তথ্য জানিয়েছেন।

লেফটেন্যান্ট কর্নেল আলী হায়দার বলেন, বৃহস্পতিবার ভোররাতে নাফ নদীর তীরবর্তী কাঁকড়া ব্রিজ এলাকার বেড়িবাঁধ দিয়ে ইয়াবার বড় একটি চালান আসার খবরে বিজিবির একটি দল সেখানে অবস্থান নেয়। একপর্যায়ে মিয়ানমারের দিক থেকে ৫-৬ জন সন্দেহভাজন লোককে আসতে দেখে বিজিবির সদস্যরা তাদের থামাতে সংকেত দেয়। এ সময় সন্দেহভাজন লোকেরা বিজিবির সদস্যদের লক্ষ্য করে অতর্কিত গুলি ছুড়তে থাকে।

বিজিবির সদস্যরাও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছোড়ে। সন্দেহভাজন ইয়াবা পাচারকারীরা তখন গুলি ছুড়তে ছুড়তে ভোররাতে অন্ধকারে মিয়ানমারের দিকে পালিয়ে যায়। পরে গোলাগুলি থেমে গেলে ঘটনাস্থলে তল্লাশি করে পাওয়া যায় ১ লাখ ৪০ হাজার ইয়াবা, দেশে তৈরি একটি লম্বা বন্দুক ও তিনটি গুলি।

আলী হায়দার আরো বলেন, বিজিবির সদস্যরা গুলিবিদ্ধ এক ব্যক্তিকে উদ্ধার করে উখিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। এ সময় হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে স্থানীয় লোকজন তার পরিচয় শনাক্ত করে।

বিজিবির দাবি, নিহত মংকিউ তংচঙ্গা একজন চিহ্নিত মাদক পাচারকারী। তিনি মিয়ানমার সীমান্ত দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে সংঘবদ্ধ চক্রের মাধ্যমে ইয়াবা পাচারে সক্রিয় ছিলেন। তার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।

এনআই

আরও পড়ুন