• ঢাকা
  • সোমবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২০, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৭
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০২০, ০৬:৩৮ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০২০, ০৬:৩৮ পিএম

পরপর ৩ কন্যাসন্তান হওয়ায় একজনকে হত্যা করল মা

রংপুর সংবাদদাতা
পরপর ৩ কন্যাসন্তান হওয়ায় একজনকে হত্যা করল মা

রংপুরের মিঠাপুকুরে পরপর তিনটি কন্যাসন্তান হওয়ায় তৃতীয় মেয়েটিকে (৫২ দিন) পানিতে ডুবিয়ে হত্যা করেছে গর্ভধারিণী মা। এ ঘটনায় পুলিশ মা খালেদা বেগমকে গ্রেফতার করেছে। ঘটনাটি শুক্রবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) সকালে ঘটলেও তা জানাজানি হয় শনিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) সকালে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্র জানায়, মিঠাপুকুর উপজেলার শাল্টি গোপালপুর ইউনিয়নের গোপীনাথপুর গ্রামের সুলতান মিয়া এবং খালেদা দম্পতির আগের দুই কন্যাসন্তান রয়েছে। তাদের একজনের বয়স ১৩ বছর, অন্যজনের ৬ বছর। ছেলের আশায় আবারো তারা সন্তান ধারণ করেন কিন্তু তাদের মনোবাসনা পূর্ণ না হওয়ায় স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বেশ কিছুদিন ধরেই বিরোধ চলছিল। এরই জের ধরে খালেদা তার ৫২ দিন বয়সী মেয়েটিকে বাড়ির পাশের এক ডোবায় পানিতে চুবিয়ে হত্যা করে প্রথমে বিষয়টি গোপন রাখে।

এদিকে প্রচার করতে থাকে তার মেয়েকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। পরে প্রতিবেশীরা আশপাশে খোঁজাখুঁজি করে দেখতে পায় পার্শ্ববর্তী ডোবায় একটি শিশুর মরদেহ ভাসছে। এলাকাবাসী মরদেহটি উদ্ধার করে বাসায় নিয়ে এলে মা খালেদা ঘটনাটি খুলে বলে এবং আত্মযাতনায় কান্নায় ভেঙে পড়ে।

মিঠাপুকুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাফর আলী খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠান। শিশুটির মা খালেদাকে আটক করেছে পুলিশ। সে ঘটনার দায় স্বীকার করেছে।

এনআই

আরও পড়ুন