• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ০৯ জুলাই, ২০২০, ২৫ আষাঢ় ১৪২৭
প্রকাশিত: মে ২৬, ২০২০, ০৭:২২ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মে ২৬, ২০২০, ০৭:২২ পিএম

ঈদের রাতে কলেজছাত্রীকে দল বেঁধে ধর্ষণ, আটক ৩

পাবনা সংবাদদাতা
ঈদের রাতে কলেজছাত্রীকে  দল বেঁধে ধর্ষণ,  আটক ৩

পাবনার চাটমোহরে এক কলেজছাত্রীকে (১৬) দল বেঁধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।  এ ঘটনায় এলাকাবাসী তিন ধর্ষককে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশের সোপর্দ করেছে। এ সময় অপর এক ধর্ষক পালিয়ে গেছে।
 
আটককৃতরা হলো- চাটমোহর উপজেলার চরপাড়া গ্রামের জয়নাল হোসেনের ছেলে শুকুর আলী, মকবুল হোসেনের ছেলে রেজাউল করিম ও শাহজাহান আলীর ছেলে ইসমাইল হোসেন। পলাতক অপর জনের নাম জানা যায়নি।

স্থানীয়রা জানান, সোমবার (২৫ মে) ঈদের দিন রাতে শারীরিক সমস্যার কারণে ওই কলেজছাত্রী প্রতিবেশী এক কিশোরীকে সাথে নিয়ে একই এলাকার এক কবিরাজের বাড়ি যান। কাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে ওই কিশোরীর বাড়ির অদূরে আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা শুকুর আলীসহ চারজন তাদের দু’জনকে একা পেয়ে মুখ চেপে ধরে পাশের একটি ক্ষেতে নিয়ে যায়।

সেখানে ওই কলেজছাত্রীর হাত-পা বেঁধে ধর্ষণ করা হয়। সাথে থাকা অপর কিশোরীকেও ধর্ষণ করতে গেলে ধর্ষকের হাতে কামড় দিয়ে সে পালিয়ে চিৎকার চেঁচামেচি করে। তার চিৎকারে স্থানীয়রা ওই ক্ষেতে গিয়ে তিনজনকে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। এ সময় একজন পালিয়ে যায়।

সহকারী পুলিশ সুপার (চাটমোহর সার্কেল) সজীব শাহরীন বলেন, এ ঘটনায় থানায়  দল বেঁধে ধর্ষণের মামলা দায়ের করে আটক তিন জনকে গ্রেফতার দেখিয়ে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।  ধর্ষণের শিকার কিশোরীর ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হবে।  পলাতক একজনকে গ্রেফতারে পুলিশ অভিযান চলছে।

এসএমএম

আরও পড়ুন