• ঢাকা
  • বুধবার, ০৫ আগস্ট, ২০২০, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭
প্রকাশিত: জুলাই ২, ২০২০, ১১:১৩ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জুলাই ২, ২০২০, ১১:১৩ পিএম

করোনাকালের সবচেয়ে বড় আকর্ষণ ‘রাজকুমার’

কক্সবাজার প্রতিনিধি
করোনাকালের সবচেয়ে বড় আকর্ষণ ‘রাজকুমার’

কক্সবাজার : কক্সবাজারের কোরবানির পশুর হাট শুরু হওয়ার আগেই পুরো এলাকা জুড়ে সাড়া ফেলেছে ‘রাজকুমার’। বিশাল আকৃতির এ গরুটি দেখতে প্রতিদিন বিভিন্ন এলাকা থেকে সাধারণ লোকজন ও ক্রেতারা ভিড় করছেন। এই গরুটি কিনতে চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে প্রায় দুই ডজন ব্যক্তি যোগাযোগ করেছেন।

গত তিন বছর ধরে লালনপালন করা ৩০ মণের (১২০০ কেজি) অধিক ওজনের বিশাল এই গরুটির দাম হাঁকানো হয়েছে ২০ লাখ টাকা। এ পর্যন্ত রাজকুমারের দর উঠেছে প্রায় ১০ লাখ টাকা। রাজকুমার জেলায় এবারের কোরবানির পশুর মধ্যে সবচেয়ে বড় আকর্ষণ বলে দাবি করেন গরুর মালিক বাদল।

জানা গেছে, তিন বছর আগে বাদলের খামারেই রাজকুমারের জন্ম হয়। গত কোরবানির ঈদে এই গরুটির ওজন ছিল প্রায় এক টন। সেই সময় রাজকুমারকে উপজেলার বড় একটি কোরবানির পশুর হাটে উঠানো হয়। সেখানে ক্রেতারা এ গরুটির দাম ৮/৯ লাখ টাকা দিতে চেয়েছিলেন। কিন্তু খামারি বাদল বেশি দামের আশায় গরুটি তখন বিক্রি করেননি।

চকরিয়া উপজেলার পশ্চিম বড় ভেওলা ইউনিয়নের দরবেশ কাটা এলাকার কৃষক আবু ওবাইদ বাদল কৃষি কাজের পাশাপাশি নিজ বাড়িতে গড়ে তুলেছেন ডেইরি ফার্ম।

বর্তমানে তার ফার্মে ছোট, বড় ও মাঝারি মিলে ৪৪টি গরু রয়েছে। যার আনুমানিক বাজার মূল্য দুই কোটি টাকা। বাদলের ডেইরি ফার্মে বেড়ে ওঠা সবচেয়ে বড় গরুটির নাম রাজকুমার।
পরম যত্নে গরুর মালিক বাদল ও তার কর্মচারীরা মিলে তিন বছর ধরে তাকে কোনো প্রকার ক্ষতিকর ওষুধ ছাড়াই দেশীয় খাবার খাইয়ে লালন-পালন করেছেন। জন্মের কিছুদিন পর শখ করেই গরুটির নাম রাজকুমার রেখেছিলেন বাদল।

জাগরণ/এমটিআই