• ঢাকা
  • শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২০, ১৫ কার্তিক ১৪২৭
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২০, ২০২০, ০২:০০ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : সেপ্টেম্বর ২০, ২০২০, ০২:০৪ পিএম

অবশেষে সেই টিউবওয়েল বন্ধ করলো প্রশাসন

মেহেরপুর সংবাদদাতা
অবশেষে সেই টিউবওয়েল বন্ধ করলো প্রশাসন

সম্প্রতি মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার ভবানীপুর গ্রামের আনারুলের বাড়িতে একটি টিউবওয়েল থেকে স্বয়ংক্রিয়ভাবে পানি বের হতে শুরু করে। এরপরই গুজব ছড়িয়ে পড়ে, এর পানি খেলে সব ধরণের রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব। তাই দলে দলে ছুটতে আসে থাকে বিভিন্ন এলাকার মানুষ। যাকে পুঁজি করে ব্যবসার ফন্দিও আটছে একটি চক্র। তাই প্রতারণার হাত থেকে দূর-দূরান্ত হতে আসা সাধারণ মানুষকে বাঁচাতে টিউবওয়েলটি বন্ধ করে দিয়েছে প্রশাসন। 

জানা গেছে, চারদিন ধরে ওই বাড়ির টিউবওয়েলে কোনো বৈদুতিক মোটর বা হাতের চাপ ছাড়াই পানি উঠছে। অনেকেই এটিকে অলৌকিক ঘটনা বলে মনে করতে শুরু করেন।এরপর বিভিন্ন স্থান থেকে মানুষ ছুটে আসতে শুরু করেন পানি সংগ্রহের জন্য। 

এমন গুজবে বিস্মিত চিকিৎসকরা বলছেন, বিশেষে কোন টিউবওয়েলের পানিতে রোগমুক্তি হবে, এমন তথ্য কোনভাবেই বিজ্ঞানসম্মত নয়।  ঘটনাটিকে পুঁজি করে কেউ যেন প্রতারণা করতে না পারে, সেজন্য টিউবওয়েলটি বন্ধ করে দেয় উপজেলা প্রশাসন।  

এ প্রসঙ্গে গাংনী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সেলিম শাহনেওয়াজ জানান, ওই টিউবওয়েলের পানিতে রোগ সারবে কীভাবে তা বোধগম্য নয়। এটি প্রতারণার ফাঁদ মাত্র। তাই টিউবওয়েলটি বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

জাগরণ/এমআর