• ঢাকা
  • বুধবার, ২৮ অক্টোবর, ২০২০, ১৩ কার্তিক ১৪২৭
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২০, ০২:৫০ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২০, ০২:৫২ পিএম

বিয়ের দাবিতে অনশনে প্রেমিকা, পালালেন প্রেমিক

ঠাকুরগাঁও সংবাদদাতা
বিয়ের দাবিতে অনশনে প্রেমিকা, পালালেন প্রেমিক
প্রেমিকের বাড়িতে অনশন করছেন প্রেমিকা। ছবি-জাগরণ

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলায়  বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন করছেন প্রেমিকা। অনশনের সংবাদ পেয়ে প্রেমিক তাপস বাড়ি থেকে পলাতক রয়েছে। সদর উপজেলার গড়েয়া ইউনিয়নের গোপালপুর বানিয়াপাড়া গ্রামের তাপস চন্দ্র বর্মনের বাড়িতে চলছে এই অনশন। সে ওই গ্রামের পরেশ চন্দ্র বর্মনের ছেলে। 

বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) দুপুর থেকে কলেজছাত্রী তাপসের বাড়িতে অবস্থান নিয়েছেন। এ ঘটনার পর থেকে পরিবারের লোকজন ও তাপস চন্দ্র বর্মন পলাতক রয়েছে। 

বিষয়টি নিয়ে গত ১০ সেপ্টেম্বর কলেজ ছাত্রীর বাবা গড়েয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রেজওয়ানুল ইসলাম রেদোর কাছে একটি লিখিত অভিযোগ দেন। অভিযোগ পেয়ে চেয়ারম্যান দুই পক্ষকেই গত বৃহস্পতিবার দুপুরে ইউনিয়ন পরিষদে মীমাংসার জন্য আসতে বলে। সেদিন মেয়ে পক্ষ উপস্থিত হলেও ছেলে পক্ষের কেউ ইউনিয়ন পরিষদে আসেনি। এরপর কলেজ ছাত্রীটি বিয়ের দাবিতে প্রেমিক তাপসের বাড়িতে গিয়ে অনশন শুরু করে। 

অনশনে কলেজছাত্রী সাংবাদিকদের বলেন,  একই গ্রামের প্রতিবেশি তাপস চন্দ্র বর্মনের সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। দুই বছর ধরে চলছিল তাদের সম্পর্ক। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বিভিন্ন জায়গায় ঘুরতে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে প্রেমিক তাপস আমাকে শারীরিক সর্ম্পকে জড়াতে লিপ্ত করেছে। অতঃপর আমি তাকে বিয়ের জন্য চাপ দিলে সে তাতে রাজি হয়নি। এজন্য তাপসের বাড়িতে অনশন শুরু করেছি। আমি তাকেই বিয়ে করবো। অন্যথায় তার বাড়িতেই আমার শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করবো।

এর জন্য গত ৬ সেপ্টেম্বর নিজ বাড়িতে বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করে এই কলেজছাত্রী। পরে পরিবারের লোকজন ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। 

স্থানীয় বাসিন্দা নজরুল ইসলাম বলেন, তাপস ও কলেজছাত্রীর প্রেমের বিষয়টি এলাকার সবাই জানে। মেয়েটি বিয়ের দাবিতে তাপসের বাড়িতে অনশন শুরু করেছে। বিষয়টি দ্রুত সমাধান হওয়া প্রয়োজন। 

গড়েয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রেজওয়ানুল ইসলাম রেদো শাহ বলেন, বিষয়টি নিয়ে মীমাংসার উদ্যোগ নেয়া হয়েছিল। কিন্তু, ছেলে পক্ষ হাজির না হওয়ায় মীমাংসা করা সম্ভব হয়নি। মেয়ে পক্ষকে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। 

এ বিষয়ে ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি তানভিরুল ইসলাম বলেন, এক কলেজছাত্রী বিয়ের দাবিতে তার প্রেমিকের বাড়িতে অনশন করেছে শুনেছি। তবে, এখন পর্যন্ত কেউ লিখিত অভিযোগ দেয়নি, অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

এদিকে প্রেমিক তাপস চন্দ্র বর্মন ও তার পরিবারের সঙ্গে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও ফোন রিসিভ না করায় যোগাযোগ সম্ভব হয়নি।

জাগরণ/এমএইচ

আরও পড়ুন