• ঢাকা
  • শনিবার, ১০ এপ্রিল, ২০২১, ২৭ চৈত্র ১৪২৭
প্রকাশিত: মার্চ ৩, ২০২১, ১০:১১ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ৪, ২০২১, ১২:০২ এএম

পুলিশের রিকশা থামিয়ে ছিনতাই

পুলিশের রিকশা থামিয়ে ছিনতাই

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে পরিবারসহ এক পুলিশ কর্মকর্তা ছিনতাইকারীর কবলে পড়েন। বুধবার (৩ মার্চ) ভোরে ভৈরব রেলস্টেশন সড়কে এ  ঘটনা ঘটে।

ছিনতাইয়ের শিকার পুলিশ কর্মকর্তার নাম মো. রায়হান উদ্দিন। তার বাড়ি ভৈরব পৌর শহরের ভৈরবপুর দক্ষিণপাড়া এলাকায়। তিনি চট্টগ্রাম আদালতে উপপরিদর্শক (এসআই) হিসেবে কর্মরত।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, রায়হান উদ্দিন ছুটি নিয়ে গত মঙ্গলবার কর্মস্থল থেকে বাড়িতে আসেন। ট্রেনে ঢাকা যাওয়ার জন্য বুধবার ভোর পাঁচটার দিকে ব্যাটারিচালিত রিকশায় করে মা ও ভাগনেকে নিয়ে ভৈরব রেলস্টেশনে যাচ্ছিলেন রায়হান। পৌর কবরস্থান অতিক্রম করার সময় কয়েকজন ছিনতাইকারী তাদের রিকশার গতিরোধ করে। এ সময় অস্ত্রের মুখে তাদের জিম্মি করে চারটি মুঠোফোন, নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার ছিনিয়ে নিয়ে গেছে ছিনতাইকারীরা। স্টেশনে পৌঁছে ঘটনাটি টহল পুলিশকে জানিয়ে ঢাকায় চলে যান রায়হান।

এ বিষয়ে জানার জন্য মুঠোফোনে এসআই রায়হান উদ্দিনের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। তবে তার বোনের স্বামী ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, “রায়হানসহ তিনজন একসঙ্গে এক রিকশায় ছিলেন। রায়হান আমাকে জানিয়েছেন, ছিনতাইকারীরা যেভাবে গলায় ছুরি ঠেকিয়েছিল, সেখানে প্রতিরোধ গড়ে তোলার সুযোগ ছিল না। এ কারণে ছিনতাইকারীরা যা চেয়েছে, তা–ই দিতে হয়েছে।”

ভৈরব থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আলী মোহাম্মদ রাশেদ বলেন, ওই স্থানে নিয়মিত টহল পুলিশ থাকে। ঘটনার কিছু সময় আগে টহল পুলিশ স্থান পরিবর্তন করেছিল। ছিনতাইকারীদের ধরার চেষ্টা চলছে।

স্থানীয় লোকজন অভিযোগ করেন, ভৈরবে ছিনতাইয়ের ঘটনা বেড়েই চলেছে। প্রধান সড়কে প্রায়ই হচ্ছে ছিনতাই। এক বছরে ভৈরবে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে তিনজন নিহত হয়েছেন। প্রতিদিন কোনো না কোনো সড়কে পথচারীরা ছিনতাইকারীর কবলে পড়েন।