• ঢাকা
  • শনিবার, ১৫ মে, ২০২১, ১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮
প্রকাশিত: এপ্রিল ১০, ২০২১, ১০:৫৬ এএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ১০, ২০২১, ১১:০২ এএম

বাড়ি ফিরে দেখেন মায়ের ক্ষতবিক্ষত লাশ

বাড়ি ফিরে দেখেন মায়ের ক্ষতবিক্ষত লাশ

বেসরকারি ব্যাংকের ব্রাঞ্চ ম্যানেজার জাহিদ আলম। কাজের সুবাধে রাজধানীর মিরপুরে থাকেন। তার মা ফাতেমা আক্তার (৬২) থাকেন সাভারে। প্রতি সপ্তাহের মতোই এবারও ছুটির দিনে মায়ের সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে দেখেন ঘরে পড়ে রয়েছে মায়ের ক্ষতবিক্ষত লাশ।

শুক্রবার (৯ এপ্রিল) দুপুরে সাভারের বিরুলিয়া ইউনিয়নের খাগান এলাকায় এক বাড়ি থেকে ফাতেমা আক্তারের (৬২) মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত ফাতেমা যশোর জেলার বাঘাপাড়া থানার ড. শেখ ফজলুর রহমানের মেয়ে। তিনি ওই এলাকায় তার ছেলে জাহিদুল আলমের বাসায় থাকতেন। 

সন্ধ্যায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সাভার মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম জানান, লাশ উদ্ধার করে ঢাকার সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।

ছেলে জাহিদ আলম বলেন, “আমি একটি বেসরকারি ব্যাংকের ব্রাঞ্চ ম্যানেজার। সেই সুবাদে আমাকে রাজধানীর মিরপুরে থাকতে হয়। প্রতি শুক্রবার খাগান আমার মাকে দেখতে আসি। আজও সকালে মাকে দেখতে আসি। পরে বাড়িতে কোনো সাড়া না পেয়ে কাজের লোককে দিয়ে দেয়াল টপকে বাড়ির ভেতরে পাঠাই। এরপর দরজা খুলে দেখি আমার মায়ের মৃতদেহ পড়ে আছে।”

“প্রথমে ভেবেছিলাম স্ট্রোক করে মারা যেতে পারে। কিন্তু মায়ের কাঁধে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। একই সঙ্গে আগুনে পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। পরে ৯৯৯-এ কল করে পুলিশে খবর দিই। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে নিয়ে যায়।”

সাভার মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই)  অপূর্ব দত্ত জানান, লাশটি তিন থেকে চার দিনের আগের। নিহতের ছেলে সাভার মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করছেন। পুলিশ তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।