• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৩ মে, ২০২১, ৩০ বৈশাখ ১৪২৮
প্রকাশিত: এপ্রিল ২২, ২০২১, ০২:৫৬ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ২২, ২০২১, ০২:৫৬ পিএম

গরমে প্রশান্তির খোঁজে নদীতে ঝাঁপ

গরমে প্রশান্তির খোঁজে নদীতে ঝাঁপ

প্রচণ্ড তাপদাহে দিশেহারা সাধারণ মানুষ। বিশেষ করে দুপুরে প্রখর রোদে রোজাদারদের ত্রাহি অবস্থা হয়। তবে যেকোনো সময় ঝড়বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছেন বরিশাল আবহাওয়া অফিসের পর্যবেক্ষকরা।

গত কয়েকদিনের তাপমাত্রায় সাধারণ মানুষের মাঝে হাঁসফাঁস অবস্থা বিরাজ করছে। বিশেষ করে ভর-দুপুরে রোদের তীব্র তাপে বিপর্যস্ত জনজীবন। এ অবস্থায় গাছের তলায়-ছায়ায় বিশ্রাম নিয়ে প্রশান্তি খুঁজছে অনেকে। অনেকে আবার নদী-পুকুর-জলাশয়ে দীর্ঘ সময় সাঁতার কেটে গা জুড়িয়ে নিচ্ছেন।

বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) দুপুরে বরিশাল নদী বন্দরে গিয়ে দেখা গেছে, নদী বন্দরের খালি পল্টুন থেকে কীর্তনখোলা নদীতে ঝাঁপিয়ে পড়ে প্রশান্তি খুঁজছে শিশু-কিশোররা। 

বরিশাল আবহাওয়া অফিসের সিনিয়র পর্যবেক্ষক মো. আনিছুর রহমান জানান, বুধবার বরিশালে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৬.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। অর্থাৎ মৃদু তাপদাহ চলছে। এটা ৩৮ ডিগ্রির উপরে উঠলে মাঝারি এবং ৪০ ডিগ্রির উপরে উঠলে তীব্র তাপদাহ শুরু হবে।

এরআগে চলতি মৌসুমে গত ২২ মার্চ বরিশালের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৬.৭ ডিগ্রি সেলিসিয়াস। এরআগে ২০১৪ সালের এপ্রিলে বরিশালে স্মরণকালের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৯.০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তাপদাহ বাড়লে যেকোনো সময় ঝড়বৃষ্টিসহ কালবৈশাখী হতে পারে বলে আশঙ্কা করেন তিনি।