• ঢাকা
  • বুধবার, ২৩ জুন, ২০২১, ৯ আষাঢ় ১৪২৮
প্রকাশিত: মে ১৫, ২০২১, ০৬:৪৬ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মে ১৫, ২০২১, ০৯:৪১ পিএম

কাদের মির্জাকে প্রতিরোধের ঘোষণা

কাদের মির্জাকে প্রতিরোধের ঘোষণা

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে সড়ক ও সেতুমন্ত্রীর ছোট ভাই ও বসুরহাট পৌরসভার আলোচিত মেয়র আবদুল কাদের মির্জাকে প্রতিরোধের ঘোষণা দিয়েছেন সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল।

শনিবার (১৫ মে) বসুরহাট বাজারের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা বিনিময় শেষে বসুরহাট পৌরসভার কেজি স্কুল রোডে এক সভায় বক্তব্যকালে মিজানুর রহমান বাদল এ ঘোষণা দেন।

বাদল বলেন, “গত পাঁচ মাস কোম্পানীগঞ্জ অবরুদ্ধ। পবিত্র রমজান এবং ঈদ উপলক্ষে প্রিয় নেতা ওবায়দুল কাদের এবং প্রশাসনের বাহিরে আমরা এক ইঞ্চিও যায়নি। কিন্তু প্রকারান্তরে আমাদের অনেক কর্মী আক্রান্ত হয়েছে, অনেক কর্মী জেলে আছে। আজকে প্রতিদিন প্রতিনিয়ত আমাদেরকে হুমকি দিচ্ছে। অনেক ধৈর্য ধরেছি। আর ধৈর্য ধরার সুযোগ নেই। আর আক্রান্ত হব না। এখন থেকে প্রতিরোধ নেওয়ার ঘোষণা দিলাম।”

সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আরও বলেন, “প্রত্যেকটা ইউনিয়নে প্রত্যেকটা ওয়ার্ডে কাদের মির্জার সন্ত্রাসীদের প্রতিহত করবেন। আমি জেলে একশ বার যাব কিন্তু কোম্পানীগঞ্জে শান্তি ফিরিয়ে আনব। প্রশাসনকে বলছি আমাকে জেলে নিয়ে যাক। কিন্তু যেখানে আক্রমণ হবে সেখানে প্রতিরোধ করা হবে। ইনশাআল্লাহ আজকে থেকে প্রতিরোধ কর্মসূচি ঘোষণা করলাম। এ অপরাজনীতির হোতা কাদের মির্জা আজকে থেকে সাবধান হয়ে যাও। কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ তোমার এ অপকর্ম সহ্য করবে না। প্রতিরোধ হবে।”

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা খিজির হায়াত খানের সভাপতিত্বে ও চরকাঁকড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান আরিফের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের মুখপাত্র মাহবুবুর রশীদ মঞ্জু, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আজম পাশা চৌধুরী রুমেল, স্বাধীনতা ব্যাংকার্স পরিষদ সদস্য ফখরুল ইসলাম রাহাত, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহ ফরহাদ লিংকন।