• ঢাকা
  • বুধবার, ২৬ জানুয়ারি, ২০২২, ১৩ মাঘ ১৪২৮
প্রকাশিত: নভেম্বর ২৭, ২০২১, ১১:৩১ এএম
সর্বশেষ আপডেট : নভেম্বর ২৭, ২০২১, ১১:৩২ এএম

চুয়াডাঙ্গা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে বিজয়ী হলেন যারা

চুয়াডাঙ্গা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে বিজয়ী হলেন যারা

চুয়াডাঙ্গা জেলা আইনজীবী সমিতি বার্ষিক নির্বাচনে বঙ্গবন্ধু আওয়ামী ও সমমনা পরিষদ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ ৯টি ও জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য পরিষদ একটি সহ-সভাপতিসহ ৬টি পদে বিজয়ী হয়েছেন।

অনুষ্ঠিত চুয়াডাঙ্গা আইনজীবী সমিতি নির্বাচনে নির্বাচন পরিচালনা উপ-পরিষদের আহবায়ক আব্দুর রশীদ চৌধুরী গত শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) রাত পৌনে ৮টার দিকে জানান, আইনজীবী সমিতি মিলনায়তনে সকাল ৮টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। ১৯৩টি ভোটের মধ্যে ১৮৭ জন আইনজীবী তাদের ভোট প্রয়োগ করেছেন। ৯টি ভোট বাতিল হয়।

নির্বাচন পরিচালনা উপ-পরিষদের অন্য ২ জন সদস্য হলেন অ্যাড. এম এম মনোয়ার হোসেন সুরুজ ও অ্যাড. শহিদুল ইসলাম।

বঙ্গবন্ধু আওয়ামী ও সমমনা পরিষদের প্রার্থী সভাপতি পদে অ্যাড. সেলিম উদ্দীন খান ১১৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য পরিষদের অ্যাড. সাইদ মাহমুদ মামীম রেজা (ডালিম) ৬২ ভোট পেয়েছেন।

সহ-সভাপতি পদে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য পরিষদের অ্যাড. আসাদুজ্জামান (আসাদ) ১০৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বঙ্গবন্ধু আওয়ামী ও সমমনা পরিষদের অ্যাড. শাহজাহান আলী পেয়েছেন ৬৩ ভোট।

বঙ্গবন্ধু আওয়ামী ও সমমনা পরিষদের কাইজার হোসেন জো. (শিল্পী) ১০১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য পরিষদের মানজার আলী জোয়ার্দ্দার (হেলাল) পেয়েছেন ৮৯ ভোট।

সাধারণ সম্পাদক পদে বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী ও সমমনা পরিষদের প্রার্থী অ্যাড. তালিম হোসেন ১০৮ ভোট পেয়ে পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য পরিষদের খন্দকার অহিদুল আলম (মানি খন্দকার) পেয়েছেন ৭১ ভোট।

যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য পরিষদের আসাদুজ্জামান মিল্টন ১০৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন ও তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বঙ্গবন্ধু আওয়ামী ও সমমনা পরিষদের সুজা উদ্দিন ১০৩ ভোট পেয়েছেন।

সদস্য পদে শরিফুল ইসলাম (১১৬), মালিক আমানুর রহমান শিপলু (১১০), হাসিবুল ইসলাম ইব্রাহিম (১১০), মফিজুর রহমান (১০৯), জহুরুল ইসলাম (১০৮), নাজমুল আহসান (১০৩), আবু তালেব (৯৬), শাহিন আক্তার (৯২) ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

এছাড়া আব্দুল্লাহ আলমামুন এরশাদ ও জিল্লুর রহমান (জালাল) ২ জন সমান ভোট পাওয়ায় লটারির মাধ্যমে কমিশন আব্দুল্লাহ আল মামুনকে (৮৫) বিজয়ী ঘোষণা করেন।