• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০২২, ৫ মাঘ ১৪২৮
প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৭, ২০২১, ১২:৪০ এএম
সর্বশেষ আপডেট : ডিসেম্বর ৬, ২০২১, ০৬:৪০ পিএম

চলতে চলতে দুই ভাগ হয়ে গেল ট্রেন

চলতে চলতে দুই ভাগ হয়ে গেল ট্রেন
সংগৃহীত ছবি

সিলেট থেকে ঢাকার উদ্দেশে ১৫টি বগি নিয়ে যাত্রা করে আন্তঃনগর জয়ন্তিকা এক্সপ্রেস ট্রেন। তারপর বিকেল ৩টা ৪০ মিনিটে ট্রেনটি যাত্রাবিরতি দেয় হবিগঞ্জ মনতলা স্টেশনে। বিরতি শেষে ৩টা ৪২ মিনিটে পুনরায় যাত্রা শুরু করে ট্রেনটি। স্টেশন ছেড়ে কয়েক গজ যেতেই ট্রেনের মাঝখানে বগির জয়েন্ট খুলে যায়। এতে ট্রেনটি দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে যায়। তারপর আশপাশের লোকজন চিৎকার করে চালকের দৃষ্টি কাড়েন। পরে চালক ট্রেনটি থামান।

সোমবার (৬ ডিসেম্বর) বিকেল ৪টার দিকে ঢাকা-সিলেট রেলপথের মাধবপুর উপজেলার মনতলা রেলস্টেশন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্টেশন মাস্টার পরশ আলী শিকদার জানান, সিলেট থেকে ঢাকাগামী আন্তঃনগর জয়ন্তিকা ট্রেনটি স্টেশনে পৌঁছাতেই এর পেছনের জয়েন্ট ছিঁড়ে চারটি বগি বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। এ সময় প্রায় তিন ঘণ্টা আটকা পড়ে ট্রেনটি।

ট্রেনের যাত্রীরা বলেন, আমরা প্রথমে বুঝতে পারিনি। পরে দেখি আশপাশের লোকজন চিৎকার করছেন। জানালা দিয়ে দেখি ট্রেনটি দুই ভাগ হয়ে গেছে। আর কিছু বগি নিয়ে আমাদের ট্রেন যাত্রা শুরু করেছে। ভাগ্য ভালো স্টেশনের কাছে এ ঘটনা ঘটেছে।

হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার মনতলা রেলস্টেশনের সহকারী স্টেশনমাস্টার জাহিদ হোসেন গণমাধ্যমকে বলেন, জয়ন্তিকা এক্সপ্রেস ট্রেন মনতলা স্টেশন থেকে ছেড়ে যাবার পর চলতে শুরু করলে হঠাৎ ১১ নম্বর বগির জয়েন্ট খুলে যায়। এতে ট্রেনটি দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে পড়ে।

জাগরণ/এসএসকে