• ঢাকা
  • সোমবার, ২৬ অক্টোবর, ২০২০, ১১ কার্তিক ১৪২৭
প্রকাশিত: এপ্রিল ১০, ২০১৯, ০৭:২৮ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ১৩, ২০১৯, ০৯:২৭ পিএম

চোখে কালো কাপড় বেঁধে অনশনে বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা

বশেমুরবিপ্রবি সংবাদদাতা
চোখে কালো কাপড় বেঁধে অনশনে বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা

গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বশেমুরবিপ্রবি) এর দুই শিক্ষার্থীর যৌন নির্যাতক শিক্ষক আক্কাস আলীর স্থায়ী চাকরিচ্যুতির দাবিতে এবার চোখে কালো কাপড় বেধে অনশন করছেন শিক্ষার্থীরা। পাশাপাশি অব্যহত রয়েছে তাদের ক্লাস পরীক্ষা বর্জন কর্মসূচিও।

বুধবার (১০ এপ্রিল) আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা জানান, সকল প্রমাণ থাকা সত্বেও প্রশাসন তদন্তের নামে কালক্ষেপণ করছে, প্রশাসন যেনো সব দেখেও কিছুই দেখছে না। তাই প্রশাসনের এমন কাজের প্রতিবাদে তারা চোখে কালো কাপড় বেধে অনশন করছেন।

এ সময় নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক শিক্ষার্থী জানান, ‘প্রশাসন থেকে আন্দোলন বন্ধের জন্য চাপ প্রয়োগ করাসহ দ্রুত ক্লাস পরীক্ষা দেয়ার মাধ্যমে একাডেমিকভাবে চাপে ফেলার চেষ্টা চলছে’। তবে যতই চাপ প্রয়োগ করা হোক, তারা তাদের ন্যায়বিচারের আন্দোলন থেকে বিচ্যুত হবেন না এবং কোনো রকম ক্লাস-পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে না।

উল্লেখ্য, গত ফেব্রুয়ারিতে সিএসই বিভাগের দুই ছাত্রী তাদের শিক্ষক আক্কাস আলীর দ্বারা যৌন নির্যাতনের শিকার হওয়ার অভিযোগ জানায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে। কিন্তু দুই মাস পেরিয়ে গেলেও প্রশাসন থেকে তার বিরুদ্ধে কোনো শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়নি। এর পরিপ্রেক্ষিতে রোববার (৭ এপ্রিল) থেকে আন্দোলন শুরু করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। আন্দোলনের মুখে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন আক্কাস আলীকে সাময়িক বহিষ্কারসহ ৪ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেন। তদন্ত কমিটিকে পাচঁ দিনের মধ্যে রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে। যার সময়সীমা শে হবে আগামী ১২ এপ্রিল।

এসসি/