• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৬ ফাল্গুন ১৪২৬

জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা

মুজিববর্ষ
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ১১, ২০২০, ০৫:০৩ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারি ১১, ২০২০, ০৫:১২ পিএম

সাগর-রুনী হত্যাকাণ্ড

১৫ মার্চ সাংবাদিকদের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঘেরাও কর্মসূচি

জাগরণ প্রতিবেদক
১৫ মার্চ সাংবাদিকদের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঘেরাও কর্মসূচি
সাগর-রুনীর ৮ম মৃত্যুবার্ষিকীতে আয়োজিত সমাবেশে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ ● জাগরণ

সাংবাদিক দম্পতি সাগর-রুনী হত্যার বিচারের দাবিতে ১৫ মার্চ (রোববার) স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঘেরাও ও বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করেছে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ। একই সঙ্গে নৃশংস এই হত্যাকাণ্ডের তদন্তে চরম ব্যর্থতার পরিচয় দেয়া র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) এর প্রতি অনাস্থা জানানো হয়েছে।

মামলাটির তদন্তে নতুন করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন পিবিআই’কে দায়িত্ব দেয়ার দাবি জানান সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ।

মঙ্গলবার (১১ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর সেগুনবাগিচার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) চত্বরে সাগর-রুনীর ৮ম মৃত্যুবার্ষিকীতে আয়োজিত সমাবেশ থেকে এসব দাবি উত্থাপন করা হয়।

ডিআরইউ সভাপতি রফিকুল ইসলাম আজাদের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমীন, যুগ্ম সম্পাদক ও ডিআরইউ’র সাবেক সভাপতি শাহেদ চৌধুরী, ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের মহাসচিব শাবান মাহমুদ, এম আবদুল্লাহ, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সহ সভাপতি নজরুল কবীর, সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ চৌধুরী, সাংবাদিক নেতা কুদ্দুস আফ্রাদ, সাজ্জাদ আলম খান তপু, সাখাওয়াত হোসেন বাদশা, শেখ মামুন, খায়রুজ্জামান কামাল, রাজু আহমেদ, রীতা নাহারসহ আরও অনেকে। 

১৫ মার্চ ঘেরাও কর্মসূচি ছাড়াও সকাল থেকে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।

সাগর সরওয়ার এবং মেহেরুন রুনি ২০১২ সালে ১১ ফেব্রুয়ারি দুর্বৃত্তের হাতে খুন হন। দীর্ঘ সময় পেরিয়ে গেলেও এই হত্যা মামলার একজন আসামিও গ্রেফতার হয়নি। তদন্তের দায়িত্বে থাকা র‌্যাব সোমবার (১০ ফেব্রুয়ারি) পর্যন্ত ৭১ বার এই মামলার তদন্ত রিপোর্ট জমা দেয়ার জন্য সময় নিয়েছে।

এমএএম/এসএমএম

আরও পড়ুন