• ঢাকা
  • বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৮ আশ্বিন ১৪২৭
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ৭, ২০২০, ১০:৫৪ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : সেপ্টেম্বর ৭, ২০২০, ১০:৫৪ পিএম

সিনহা হত্যা মামলা

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে জমা পড়লো পূর্ণাঙ্গ তদন্ত প্রতিবেদন

জাগরণ প্রতিবেদক
স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে জমা পড়লো পূর্ণাঙ্গ তদন্ত প্রতিবেদন
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের নিকট তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন হস্তান্তর- দৈনিক জাগরণ।

পুলিশের গুলিতে অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান নিহত হওয়ার ঘটনায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের গঠিত তদন্ত কমিটি তাদের প্রতিবেদন জমা দিয়েছে।

কমিটির প্রধান চট্টগ্রামের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) মোহাম্মদ মিজানুর রহমান সোমবার দুপুরে সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের কাছে এই তদন্ত প্রতিবেদন হস্তান্তর করেন।

কমিটিতে সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের প্রতিনিধি লেফেটেনেন্ট কর্নেল এস এম সাজ্জাদ হোসেন এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন।

গত ৩১ জুলাই কক্সবাজারের টেকনাফের বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা।

ওই ঘটনায় পুলিশের ভাষ্য নিয়ে সন্দেহ তৈরি হলে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় গত ২ অগাস্ট তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করে। পরদিন কমিটি পুনর্গঠন করে চার সদস্যের করা হয়।

প্রতিবেদন গ্রহণ করে ঘটনার পরম্পরা তুলে ধরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “ঘটনা সরেজমিন তদন্ত করে কারণ, উৎস এবং ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনা প্রতিরোধে করণীয়সহ সার্বিক বিষয় বিশ্লেষণ করে তদন্ত কমিটিকে সুস্পষ্ট মতামতসহ প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছিল।

“পূর্ণাঙ্গ তদন্ত রিপোর্ট নিয়ে এসেছে। রিপোর্টে কি আছে আমরা এখনও দেখিনি। …আমাদের সচিব মহোদয় এগুলো বিশ্লেষণ করে যেখানে যেটা প্রয়োজন সেই অনুযায়ী কাজ করবেন।”

মন্ত্রী বলেন, “আপনারা নিশ্চয় জানেন, আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী এটার পুলিশি তদন্ত চলছে। সে কারণে আমরা প্রকাশ্যে কিছু জানাতে পারব না। আমরা আদালতকে এটার সম্পর্কে জানিয়ে দেব, আদালত মনে করলে এটাকে আমাদের কাছ থেকে অফিসিয়ালি নিয়ে যাবেন।

আদালত তদন্তের জন্য হয়ত এটা নিয়েও নিয়ে পারেন... এটা আদালতের এখতিয়ার।”
তদন্ত প্রতিবেদনে যাদের নামে অভিযোগ আসবে’ তাদের বিষয়ে কী পদক্ষেপ নেওয়া হবে তা গণমাধ্যমকে জানানো হবে বলে আশ্বাস দেন কামাল।

সিনহা হত্যার ঘটানাটি ‘পরিকল্পিত’ ছিল কি না- এমন প্রশ্নে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “তদন্ত রিপোর্ট আমার কাছে মাত্র এলো। এর ভেতর কী লেখা আছে, কী উল্লেখ আছে আমরা তো জানি না কিছু। আমরা বের করে নেই, আমরা এগুলো স্টাডি করি, তারপরে আপনাদের জানাতে পারব।”

এসকে