• ঢাকা
  • শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২০, ১৫ কার্তিক ১৪২৭
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২০, ০১:৪৯ এএম
সর্বশেষ আপডেট : সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২০, ০১:৪৯ এএম

তিন বিসিএসআইআর কর্মচারীর ৩৭ লাখ টাকা আত্মসাৎ!

জাগরণ প্রতিবেদক
তিন বিসিএসআইআর কর্মচারীর  ৩৭ লাখ টাকা আত্মসাৎ!
প্রতীকী ছবি

বাংলাদেশ কাউন্সিল অব সায়েন্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিসার্চ (বিসিএসআইআর)-এর অন্তর্গত পিপি অ্যান্ড পিডিসি শাখার হিসাব বিভাগে কর্মরত কতিপয় কর্মচারীরের বিরুদ্ধে, করোনাকালীন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার অনুপস্থিতির সুযোগে পরস্পর যোগসাজোশের মাধ্যমে হিসেব বিভাগের অন্তত ৩৭ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ রয়েছে বলে জানা গেছে। 

সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানটির বিশেষ সূত্রের বরাতে পাওয়া তথ্য মতে জানা গেছে, বিসিএসআইআর-এর পিপি অ্যান্ড পিডিসি শাখার হিসাব বিভাগে কর্মরত এলডিএ (জুনিয়র অডিটর কাম টাইপিস্ট) সফিকুল, একই বিভাগের আলেয়া ও তন্নী নামের দুই অফিস সহকারীর সঙ্গে যোগসাজোশের মাধ্যমে এই টাকা আত্মসাৎ করে। যার মধ্যে সফিকুল একাই আত্মসাৎ করে ৩০ লাখ টাকা। আর এই তথ্য গোপন রাখার জন্যে অফিস সহকারি আলেয়াকে সেখান থেকে ৫ লাখ ও  তন্নীকে ৩ লাখ টাকার বিনিময়ে নিজের পক্ষে রাখে সফিকুল।

বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়, করোনা মহামারিকালীন লকডাউন ও আনুষাঙ্গিক নানা জটিলতার কারণে প্রতিষ্ঠানের হিসাব রক্ষণ কর্মকর্তা নিয়মিতভাবে অফিসে উপস্থিত থাকতে পারতেন না। যার প্রেক্ষিতে তিনি জরুরিভিত্তিতে অফিসের বিশেষ প্রয়োজনের কথা বিবেচনা করে মাথায় রেখে বেশ কিছু খালি চেকে সাক্ষর করে সেগুলো আস্থাভাজন হিসেবে এলডিএ সফিকুলের কাছে দিয়ে যান। কিন্তু ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার আস্থা ভঙ্গ করে সফিকুল গত কয়েক মাসের বেতন, ভাতা ও আনুষাঙ্গিক নানা ভুয়া খাত দেখিয়ে সেই ৩৭ লাখ টাকা আত্মসাৎ করে যেখান থেকে ভাগ দেয়া হয় অফিস সহকারি আলেয়া ও তন্নীকেও।

১৩ সেপ্টেম্বর এলডিএ সফিকুল ৩০ লাখ টাকা ফিক্সট ডিপোজিট করতে গেলে বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে বিসিএসআইআর পূবালী ব্যাংকে বিষয়টি অবহিত করে। পূবালী ব্যাংক ম্যানেজারের কাছে বিষয়টি সন্দেহ হয়, কারণ সফিকুলের বেতন ১০ হাজার টাকা, চাকরীর মেয়াদ ২ বছর হয়েছে মাত্র। তিনি বিষয়টি নিয়ে পিপি অ্যান্ড পিডিপির পরিচালকের সাথে আলাপ করেন। তখনই বিষয়টি ধরা পড়ে। ইতিমধ্যে আলেয়া ৫ লাখ টাকা ফেরত দিয়েছে। অন্যরা টাকা ফেরত দেয়নি। এনিয়ে পরিচালক রুপেশ কুমার রায় হিসাব বিভাগের সাথে সপ্তাহ খানেক ধরে দেন-দরবার করছেন। 

 ২৪ সেপ্টেম্বর পরিচালক বিষয়টি বিসিএসআইআর এর চেয়ারম্যানকে জানানো প্রস্তুতি নিয়েছেন। এদিকে ১৫ দিন হয়ে গেলেও এবিষয়ে কোন প্রশাসনিক পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়নি জানিয়েছন সংশ্লিষ্টরা। 

এসকে