• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৩ আগস্ট, ২০১৯, ৮ ভাদ্র ১৪২৬
Bongosoft Ltd.
প্রকাশিত: আগস্ট ১৪, ২০১৯, ১২:৫৩ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : আগস্ট ১৪, ২০১৯, ১২:৫৩ পিএম

ঈদের আমেজে ফাঁকা ব্যাংক পাড়া

জাগরণ প্রতিবেদক
ঈদের আমেজে ফাঁকা ব্যাংক পাড়া
ঈদের পর প্রথম অফিস, মতিঝিল সোনালী ব্যাংক থেকে নেয়া; ছবি- কাশেম হারুন


ঈদের পর প্রথম কার্যদিবস বুধবার মতিঝিল ব্যাংক পাড়ায় ছিল ঈদের আমেজ। কর্মকর্তা-কর্মচারীরা প্রথম অফিসে এসে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করছেন একে অপরের সঙ্গে। ঈদ পরবর্তী প্রথম কার্যদিবস হওয়ায় ফাঁকা ব্যাংকের শাখাগুলো। গ্রাহক না থাকায় অলস সময় পার করছেন ব্যাংকের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। বুধবার মতিঝিল ব্যাংক পাড়া ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, রাজধানীর ব্যস্ততম স্থান মতিঝিলে আগের মত কোলাহল নেই। নেই কোন যানজট, মাঝে মাঝে দুএকটা বাস দেখা গেলেও তাও ফাঁকা। মতিঝিলে সোনালী ব্যাংকে গিয়ে দেখা গেছে, অলস সময় পার করছেন ব্যাংক কর্মকর্তারা। মাঝে মধ্যে দু একজন গ্রাহক ছাড়া পুরো ব্রাঞ্চই ফাঁকা। একই পরিবেশ মতিঝিলের প্রায় সব ব্যাংকেই। মতিঝিলে ইসলামী ব্যাংকের লোকাল শাখায় গিয়ে দেখা যায়, গ্রাহকের উপস্থিতি একেবারেই কম। অনেক কাউন্টারে ফাঁকা রয়েছে। অথচ আগে প্রতিটি কাউন্টারেই গ্রাহকের লম্বা সারি দেখা যেত।

ব্যাংক কর্মকর্তারা জানান, সাধারণত ঈদ পরবর্তী দু’তিন কার্যদিবস অনেকটা ফাঁকা থাকে। তবে এবারের বিষয়টা ভিন্ন। কাল বৃহস্পতিবার জাতীয় শোক দিবসের সরকারি ছুটি হওয়াতে অনেকে ছুটি নিয়েছেন। যার ফলে ব্যাংকের কর্মীও কম। তবে আগামী রবিবার থেকে সেই চিরচেনা পরিবেশ তৈরি হবে বলে জানান তারা।

কথা হয় মতিঝিলে ইসলামী ব্যাংকের শাখায় ব্যাংকিং সেবা নিতে জাহিদুল ইসলামের সঙ্গে। তিনি দৈনিক জাগরণকে বলেন, বাড়িতে কিছু টাকা পাঠাতে হবে তাই ব্যাংকে এসেছি। প্রতিবারই ঈদে বাড়ি যাই। এবার যেতে পারিনি ব্যস্ততার কারণে। আর চেক বইটাও শেষ হয়ে গেছে। তাই চিন্তা করলাম ঈদ পরবর্তী সময়ে ব্যাংক ফাঁকা থাকবে লাইনে দাঁড়াতে হবে না তাই চলে এলাম।

এআই/আরআই

আরও পড়ুন

Islami Bank