• ঢাকা
  • রবিবার, ২৫ অক্টোবর, ২০২০, ৯ কার্তিক ১৪২৭
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২০, ০২:৪২ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২০, ০২:৫১ পিএম

পেঁয়াজ ইস্যুতে অনুতপ্ত ভারত 

জাগরণ ডেস্ক
পেঁয়াজ ইস্যুতে অনুতপ্ত ভারত 

পূর্ব ঘোষণা ছাড়া হঠাৎ করেই পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করায় অনুতপ্ত ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, এমনটাই জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন। 

বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আগাম ঘোষণা না দিয়ে পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করায় অনুতপ্ত ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। কারণ তারও জানতো না হঠাৎ করে এটা বন্ধ হয়েছে। আমাদের একটি বোঝাপড়া হচ্ছে এ ধরনের সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে আমাদের জানানো প্রয়োজন। আসলে এ সম্পর্কে তাদের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কিছুই জানতো না।

এর আগে পেঁয়াজ রফতানি বন্ধে ভারতের আদেশ প্রত্যাহার করতে আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশ।

তবে ঘোষণা ছাড়াই পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে ভারত অনুতপ্ত হলেও গেল দু’দিনে দেশে ঢোকেনি আগের এলসির একটি ট্রাকও। পুর্বের খোলা এলসির বিপরীতে দেশের অন্যতম স্থলবন্দর যশোরের বেনাপোলে শতাধিক, সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দরে ৫শত, দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরে প্রায় ২শত ট্রাক পেঁয়াজ বোঝাই করে সীমান্তের ওপারে ভারতের অভ্যন্তরে আটকে রয়েছে।

এদিকে বৃহস্পতিবার রাজধানীর বিভিন্ন বাজারে খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, খুচরা বাজারে দেশি পেঁয়াজের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৯০ থেকে ১১০ টাকা। আমদানি করা ভারতের পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৭০ থেকে ৮০ টাকা কেজি। অপরদিকে, পাইকারিতে দেশি পেঁয়াজের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৮০ থেকে ৮৫ টাকা। আমদানি করা ভারতের পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৬৫ টাকা।

এর আগে গতকাল অস্থিতিশীল পেঁয়াজ বাজার নিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি জানিয়েছেন,পেঁয়াজ আমদানির বিকল্প বাজার খুঁজছে সরকার। ভারত থেকে এলসির মাধ্যমে ক্রয়কৃত পেঁয়াজ যেগুলো সীমান্ত পার হওয়ার অপেক্ষায় আছে, সেগুলো দু-একদিনের মধ্যে দেশে আসবে। তুরস্ক ও মিসর থেকে টিসিবির মাধ্যমে পেঁয়াজ আমদানি করা হচ্ছে, অল্প কিছু দিনের মধ্যে এগুলোও দেশে পৌঁছবে।

তিনি আরো বলেন, টিসিবি এবার বড় ধরনের পেঁয়াজের মজুত গড়ে তোলার পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। ভারত পেঁয়াজ রফতানি বন্ধের আগেই আন্তর্জাতিক টেন্ডারের মাধ্যমে এগুলো ক্রয় করা হয়েছিল। আশা করা যাচ্ছে এক মাসের মধ্যে পেঁয়াজের বাজার স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরবে। ভোক্তারা পেঁয়াজ ব্যবহারে একটু সাশ্রয়ী হলে কোনো সমস্যা হবে না। 

উল্লেখ্য, গত বছর এই সেপ্টেম্বর মাসেই কোন নোটিশ ছাড়াই ভারত পেঁয়াজ রপ্তানির নিষেধাজ্ঞা দেয়ার পর বাংলাদেশে পেঁয়াজের দাম ৩০০ টাকা ছাড়িয়ে গিয়েছিল। বিশ্বে সবচেয়ে বেশি পেঁয়াজ রপ্তানি করে ভারত।

জাগরণ/এমআর