• ঢাকা
  • শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২০, ১৫ কার্তিক ১৪২৭
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২০, ১২:১৯ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২০, ১২:৩৩ পিএম

৩০০ টাকায় মিলছে ইলিশ, চড়া সবজি বাজার 

জাগরণ ডেস্ক
৩০০ টাকায় মিলছে ইলিশ, চড়া সবজি বাজার 

রাজধানীতে সপ্তাহের ব্যবধানে কেজি প্রতি ইলিশের দাম ১০০ টাকা পর্যন্ত কমেছে। তবে আগের চড়া দামেই বিক্রি হচ্ছে সবজি।

শুক্রবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা গেছে, সপ্তাহের ব্যবধানে কেজিপ্রতি ৫০ থেকে ১০০ টাকা পর্যন্ত দাম কমেছে রুপালি ইলিশের। এসব বাজারে দাম কমে প্রতিটি সোয়া কেজি থেকে দেড় কেজি ওজনের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ৯০০ থেকে ৯৫০ টাকায়, এক কেজি ওজনের প্রতিটি ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ৮০০ থেকে ৮৫০ টাকায়, ৭৫০ গ্রাম ওজনের প্রতিটি ইলিশ ৫৫০ টাকায়, ৫০০ গ্রাম ওজনের প্রতিটি ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ৪৮০ থেকে ৫০০ টাকায়, আধা কেজির চেয়ে ছোট প্রতিটি ইলিশ ৩০০ থেকে ৩৫০ টাকায়।

এছাড়াও অপরিবর্তিত আছে অন্য সব মাছের দাম। এসব বাজারে প্রতি কেজি পাবদা ২৮০ থেকে ৩৫০ টাকায়, রুই আকার ভেদে ১৮০ থেকে ৩০০ টাকায়, তেলাপিয়া ১১০ থেকে ১৫০ টাকায়, কাঁচকি মাছ ২৫০ থেকে ২৮০ টাকায়, মলা ২৮০ থেকে ৩০০ টাকায়, দেশি টেংরা ৩৫০ থেকে ৪৫০ টাকায়, নদীর টেংরা (বড়) ৪০০ থেকে ৪৫০ টাকায়, চাষের শিং আকার ভেদে ২৫০ থেকে ৩৮০ টাকায়, দেশি শিং ৬০০ থেকে ৭৫০ টাকায়, দেশি চিংড়ি (ছোট) ৩০০ থেকে ৪০০ টাকায়, কৈ মাছ ১৫০ থেকে ১৬০ টাকায়, মৃগেল ১৬০ থেকে ২৮০ টাকায়, পাঙাস ১০০ থেকে ১৫০ টাকায়, কাতল আকার ভেদে ১৭০ থেকে ২৮০ টাকায় মাছ বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে,আগের চড়া দামেই বিক্রি হচ্ছে সবজি। প্রতিকেজি হাইব্রিড শসা বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৫০ টাকা, শসা (দেশি) বিক্রি হচ্ছে ৭০ টাকায়, গাজর (আমদানি) ৮০ থেকে ৯০ টাকা, মানভেদে ঝিঙ্গা-ধুন্দল বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৬০ টাকা, চিচিঙ্গা ৪০ থেকে ৫০ টাকা, কাকরোল আকারভেদে ৬০ থেকে ৭০ টাকা, ঢেঁড়স বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৬০ টাকা, পটল ৬০ টাকা, বেগুন আকারভেদে ৬০ থেকে ৯০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া ৩০ টাকা, টমেটো ১২০ থেকে ১৩০ টাকা কেজিদরে।

কাঁচা মরিচ ২০ টাকা কমে বিক্রি হচ্ছে ১৪০ থেকে ১৭০ টাকা কেজিদরে। আগের দামেই বিক্রি হচ্ছে আলু, পেঁপে, কচুরমুখি ও কাঁচকলা। এ বাজারে প্রতিকেজি আলু বিক্রি হচ্ছে ৩৫ থেকে ৪০ টাকা কেজিদরে, পেঁপে ৩৫ থেকে ৪৫ টাকা, কচুরমুখি ৫০ থেকে ৬০ টাকা, কাঁচকলা প্রতিহালি ৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

আটিপ্রতি পাঁচ টাকা পর্যন্ত দাম কমেছে শাকের দাম। এসব বাজারে প্রতিআটি লালশাক বিক্রি হচ্ছে ১৫ টাকা, মূলা ও কলমিশাক ১০ থেকে ১২ টাকা, পুঁইশাক ১৫ থেকে ২০ টাকা, ডাটাশাক ১৫ থেকে ২০ টাকা পর্যন্ত। আগের দাম চাওয়া হচ্ছে লাউ ও কুমড়ার শাকে। বর্তমানে লাউ ও কুমড়া শাক বিক্রি হচ্ছে ৩০ থেকে ৩৫ টাকায়।

জাগরণ/এমআর