• ঢাকা
  • রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৩ আশ্বিন ১৪২৮
প্রকাশিত: আগস্ট ১, ২০২১, ১২:৫৭ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : আগস্ট ১, ২০২১, ১২:৫৯ পিএম

জিপিএইচ ইস্পাতের দৈনিক ২৫০ টন অক্সিজেন উৎপাদন ও সরবরাহ

জিপিএইচ ইস্পাতের  দৈনিক ২৫০ টন অক্সিজেন উৎপাদন ও সরবরাহ
ফাইল ফটো।

করোনাভাইরাস মহামারীর এই ক্রান্তিকালে প্রতিদিন দেশের অক্সিজেন চাহিদার বিপুল একটি অংশ সরবরাহ করছে জিপিএইচ ইস্পাত। করোনাকালে আক্রান্ত রোগীদের পাশে দাঁড়াতে প্রতিষ্ঠানটি ‘করোনা আক্রান্তদের জীবন সঞ্জীবনী অক্সিজেন’ স্লোগান নিয়ে নতুন এয়ার সেপারেশন ইউনিট স্থাপন করে।

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে অবস্থিত জিপিএইচ ইস্পাতের নতুন প্লান্টে বসানো হয় দৈনিক ৩০০ টন উৎপাদন সক্ষমতার দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ এয়ার সেপারেশন প্লান্ট, যা অক্সিজেন প্লান্ট নামে অধিক পরিচিত। এই প্লান্টে প্রতিদিন ২২০ টন বায়বীয় অক্সিজেন, ২২-২৫ টন তরল অক্সিজেন উৎপাদিত হচ্ছে। 

এর মধ্যে নিজেদের ইস্পাত উৎপাদন ও পরিশোধনে ব্যবহার করা হচ্ছে দৈনিক ১৫০ টন এবং তরল অক্সিজেন স্পেক্ট্রার মাধ্যমে সিএসআর হিসেবে বিভিন্ন হাসপাতালে সরবরাহ করা হচ্ছে। এ প্লান্টে প্রতিদিন বায়বীয় নাইট্রোজেন, তরল নাইট্রোজেন ও তরল আর্গন গ্যাস তৈরি হচ্ছে।

করোনার সংকটকালীন জিপিএইচ ইস্পাত প্রথমবারের মতো দেশের প্রত্যন্ত উপজেলা পর্যায়ের হাসপাতাল, মা ও শিশু হাসপাতাল, জেনারেল হাসপাতাল, ফিল্ড হাসপাতাল ও ২৭ এপ্রিল সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে এবং দ্বিতীয় ওয়েভে ২৮ এপ্রিল পুনরায় মা ও শিশু হাসপাতালে অক্সিজেন বিতরণ করেছে। 

করোনা মহামারীতে অক্সিজেনের এই ঘোর সংকটকালে যেকোনো প্রতিকূলতায় মানুষের পাশে থাকতে, মানুষের জন্য কাজ করে যেতে দৃঢ়তম প্রতিশ্রুতিতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ জিপিএইচ ইস্পাত।

   

জাগরণ/এসকেএইচ