• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৯ আশ্বিন ১৪২৮
প্রকাশিত: আগস্ট ৪, ২০২১, ০১:৩৩ এএম
সর্বশেষ আপডেট : আগস্ট ৩, ২০২১, ০৭:৩৩ পিএম

জুলাই মাসে রফতানি কমেছে ১১%

জুলাই মাসে রফতানি কমেছে ১১%
প্রতীকী ছবি

ঈদের ছুটি এবং লকডাউনে শিল্প কারখানা বন্ধ থাকার কারণে নতুন অর্থবছরের প্রথম মাসেই বড় ধরনের ধাক্কা এলো রফতানি খাতে।

জুলাইতে রফতানি কম হয়েছে আগের অর্থবছরের একই মাসের তুলনায় ১১ শতাংশেরও বেশি। লক্ষ্যমাত্রা থেকে আয় কম হয়েছে ৭ শতাংশের মত।

প্রধান পণ্য তৈরি পোশাকের রফতানিও ১১ শতাংশ কমেছে।

জুলাই মাসে ঈদের ছুটি এবং লকডাউন মিলে মাসের শেষ ১৩ দিন টানা বন্ধ ছিল সব ধরনের শিল্প কারখানা। উৎপাদন এবং রফতানি কার্যক্রম সচল ছিল মাত্র ১৫ দিন। অর্থাৎ গোটা মাসে কার্যক্রম চলেছে আধা মাস।

মূলত এই কারণেই এত বেশি পরিমাণে  কমলো।

বাণিজ্য বিশ্লেষকরা মনে করেন, লকডাউন এবং ঈদের ছুটির অভ্যন্তরীন কারণ তো রয়েছেই। এর সঙ্গে আন্তর্জাতিক কিছু কারণও জুলাই মাসে রফতানি কমে যাওয়ার পেছনে দায়ী থাকতে পারে।

গবেষণা সংস্থা সিপিডির গবেষণা পরিচালক ড. খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম বলেন, অপ্রচলিত বাজার শ্রেণির ভারতে করোনার সংক্রমণ মারাত্মক। দেশটিতে ৭৫ শতাংশ পণ্য রফতানি হয় স্থলপথে। অনেক দিন ধরেই স্থলপথ প্রায় বন্ধ। ফলে ভারতনির্ভর পণ্যগুলোর রফতানি কমে যাওয়ার কথা।

পাট, প্রক্রিয়াজাত খাদ্য, ব্যাটারি এমন অনেক পণ্যের রফতানিই এ কারণে কমেছে। জাপানসহ এশিয়ার অনেক দেশেই পরিস্থিতি স্বাভাবিক নয়। 

ড. খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম মনে করেন, এর বাইরে অন্য কারণের মধ্যে চট্টগ্রাম বন্দরে কিছু জটিলতা ছিল। কনটেইনার জট ছিল। অনেক রফতানিকারক কলম্বো বন্দরের মাধ্যমে ক্রেতার হাতে পৌঁছানোর চেষ্টা করছেন।

রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর ( ইপিবি) প্রতিবেদনে দেখা যায়, সমাপ্ত মাসটিতে রফতানি হয়েছে ৩৪৭ কোটি ডলারের পণ্য। গত অর্থবছরের এ মাসে রফতানির পরিমাণ ছিল ৩৯১ কোটি ডলার। আগের মাস জুনের তুলনায় জুলাই মাসে রফতানি কম হয়েছে ১১ কোটি ডলার।

জুনে রফতানির পরিমাণ ছিল ৩৫৮ কোটি ডলার।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, জুলাই মাসে রপ্তানি কম হয়েছে ১১ দশমিক ১৯ শতাংশ। সার্বিক এই রফতানির তুলনায় তৈরি পোশাক খাতের র কম হয়েছে ১১ দশমিক ০২ শতাংশ। মাসটিতে রফতানি হয়েছে ২৮৯ কোটি ডলারের পোশাক।

গত বছরের জুলাই মাসে এর পরিমাণ ছিল ৩২৪ কোটি ডলার। পোশাকের মধ্যে ওভেনের অবস্থা বেশি খারাপ। শার্ট-প্যান্ট জাতীয় পণ্যের রফতানি কমেছে ১৮ শতাংশ। রফতানি তালিকার কিছু ছোট পণ্য ছাড়া অন্যসব পণ্যেরই রফতানি কমেছে মাসটিতে।

জাগরণ/এসএসকে/এমএ