• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর, ২০১৯, ১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬
প্রকাশিত: এপ্রিল ২, ২০১৯, ০৭:০২ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ২, ২০১৯, ০৭:০২ পিএম

পুলিশ পাহারায় পরীক্ষা কেন্দ্রে বিউটি

রাজশাহী সংবাদদাতা
পুলিশ পাহারায় পরীক্ষা কেন্দ্রে বিউটি
এইচএসসি পরীক্ষার্থী বিউটি খাতুন

প্রেম করে বিয়ের অপরাধে স্বামীর কাছ থেকে আলাদা করতেই তার বোনের স্বামী তাকে তুলে নিয়ে যাবার হুমকি দেন। তাই চলমান এইচএসসির প্রথম দিনের পরীক্ষায় বসা হয়নি বাগমারা উপজেলার মচমইল ডিগ্রি কলেজের ছাত্রী বিউটি খাতুনের।

তবে পুলিশী পাহারায় মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) দ্বিতীয় দিনের পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে এই শিক্ষার্থী। এর আগে বিষয়টি উল্লেখ করে সোমবার (১ এপ্রিল) আদালতে মামলা দায়ের করেন বিউটি। তিনি উপজেলার মাধাইমুড়ি গ্রামের বাবর আলীর মেয়ে।

স্বামী সিরাজুল ইসলাম বলেন, সোমবার তারা এনিয়ে আদালতে মামলা দায়ের করেছেন। ওই রাতেই পুলিশ তাদের বাড়িতে যায় এবং নিরাপত্তাসহ বিউটিকে পরীক্ষা কেন্দ্রে নেয়ার প্রতিশ্রুতি দেয়। মঙ্গলবার পুলিশী নিরাপত্তায় বিউটি পরীক্ষা দিয়েছে।

বিউটি খাতুন জানান, চার বছর প্রেমের পর সাত মাস আগে পরিবারের অমতে উপজেলার তেলীপুর গ্রামের মন্টু প্রামানিকের ছেলে সিরাজুল ইসলামকে বিয়ে করেন তিনি। কিন্তু বিয়ের পর থেকেই তার বোনের স্বামী ভবানীগঞ্জ পৌরসভা এলাকার একডালা গ্রামের বাসিন্দা জাহাঙ্গীর আলম বিয়ে বিচ্ছেদের জন্য উঠেপড়ে লাগেন। এরই অংশ হিসেবে বাবার বাড়িতে ডেকে নিয়ে তার স্বামীর উপর নির্যাতন চালান জাহাঙ্গীর। জিম্মি করে পরে সিরাজুলকে দিয়ে তালাকনামাই সই করিয়ে নেন। খবর পেয়ে ওই রাতেই বাগমারা থানা পুলিশ তাদের উদ্ধার করে। এরপর থেকেই অব্যহত হুমকি পাচ্ছিলেন বিউটি।

বাগমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাছিম আহম্মেদ বলেন, বিয়ের পর স্বামীর বাড়ি থেকে লেখাপড়া করে পরীক্ষার প্রস্তুতি নেন বিউটি। এরপরও হুমকিতে ওই পরীক্ষার্থীর পরীক্ষা দেয়া হচ্ছেনা জানতে পেরে ব্যবস্থা নেয় পুলিশ। তাছাড়া যতদিন পরীক্ষা শেষ না হবে ততদিন তাকে কেন্দ্রে আনা-নেয়া করবে পুলিশ। এ ব্যাপারে বোনের স্বামীসহ ৫ জনের নামে মামলা দিয়েছে ওই ছাত্রী।

এসসি/