• ঢাকা
  • সোমবার, ২৪ জুন, ২০১৯, ১০ আষাঢ় ১৪২৬
Bongosoft Ltd.
প্রকাশিত: এপ্রিল ২, ২০১৯, ০৮:১৭ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ২, ২০১৯, ০৮:১৭ পিএম

মেধাবী রকিকে দমাতে পারেনি প্রতিবন্ধিতা

রাজশাহী সংবাদদাতা
মেধাবী রকিকে দমাতে পারেনি প্রতিবন্ধিতা
প্রতিবন্ধি শিক্ষার্থী মেহেদি হাসান রকির

নেই আঙুল, দুই হাতের কেবল কবজি আছে মেহেদি হাসান রকির। এই দু’হাত দিয়ে কলম ধরে এবারের এইচএসসি পরীক্ষায় বসেছে রাজশাহীর বাঘা উপজেলার মেধাবী এই শিক্ষার্থী।

মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) বাংলা দ্বিতীয় পত্র পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে প্রতিবন্ধি এই শিক্ষার্থী। আড়ানী আলহাজ্ব এরশাদ আলী ডিগ্রি মহিলা কলেজ কেন্দ্রের ৩০২ নম্বর কক্ষে পরীক্ষা দিচ্ছে সে।

রকি উপজেলার আড়ানী পৌরসভার গোচর গ্রামের আকছেদ আলীর ছেলে। সে আড়ানী ডিগ্রি কলেজ থেকে এবারের এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে।

জানা যায়, ২০১৭ সালে আড়ানী মনোমোহীনি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এসএসসি পাশ করে রকি। পঞ্চম ও অষ্টম শ্রেণিতে জিপিএ-৫ পেয়েছিলো সে।

পরীক্ষা শেষে রবি জানায়, বাংলার দুটি পত্রের পরীক্ষাই ভালো হয়েছে তার। ভালো ফলাফল করে রবি ভবিষ্যতে প্রশাসনিক কর্মকর্তা হতে চায়। নিজ হাতে পরিবারের হালও ধরতে চায় সে।  

রকির বাবা আকছেদ আলী জানায়, আমার চার সদস্যের পরিবারে রকি। সে শারীরিক প্রতিবন্ধিতা নিয়ে জন্ম নিয়েছে। কিন্তু এই প্রতিবন্ধিতা তাকে দমাতে পারেনি। নিজের সব কাজকর্মসহ খেলাধুলা, সাইকেল চালানো সবই একাই করতে পারে সে। পৈত্রিক দুই বিঘা জমিই তার সম্বল। এই জমির আয় দিয়েই দুই ছেলের পড়াখেলা ও সংসারের খরচ জোগান তিনি। অনেক কষ্টে তাদের পড়ালেখা চালিয়ে নিচ্ছেন।

কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত বাঘা উপজেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা মাহমুদুল হাসান জানান, তার দুই হাতের আঙুল নেই। তবু দুই হাত দিয়ে অনেকটাই সাবলিলভাবে লিখে যাচ্ছে এই পরীক্ষার্থী। হাতের লেখাও অন্যদের চেয়ে ভালো। বিধি অনুযায়ী বর্ধিত সময়সহ সব সুবিধা পাচ্ছে এই পরীক্ষার্থী।

এসসি/

 

 

Space for Advertisement