• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৩ আগস্ট, ২০১৯, ৮ ভাদ্র ১৪২৬
Bongosoft Ltd.
প্রকাশিত: জুলাই ১৭, ২০১৯, ০৩:৪২ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জুলাই ১৭, ২০১৯, ০৩:৪৩ পিএম

অধিভুক্তি বাতিল আন্দোলন

৪ দফা দাবিতে টিএসসি এলাকা অবরুদ্ধ

ঢাবি প্রতিনিধি
৪ দফা দাবিতে টিএসসি এলাকা অবরুদ্ধ
টিএসসি এলাকায় অবরুদ্ধ রাস্তা: ছবি- দৈনিক জাগরণ


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলসহ চার দফা দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র (টিএসসি) এলাকার আশেপাশের রাস্তা ব্যারিকেড দিয়ে অবরোধ করে রেখেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা। বুধবার (১৭ জুলাই) সকাল থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যে বিক্ষোভ কর্মসূচির মাধ্যমে এ আন্দোলন শুরু করেন তারা। অবরোধের কারণে আশেপাশের রাস্তা যান চলাচল বন্ধ হয়ে যানজটের সৃষ্টি হয়।

গত সোমবার (১৫ জুলাই) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা তাদের দাবি মানার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দেন। কিন্ত প্রশাসন তাদের দাবির বিষয়ে কোনো পদক্ষেপ না নেয়ায় আজ থেকে তারা পুনরায় আন্দোলন শুরু করেছেন।

আন্দোলনকারীদের চার দফা দাবিগুলো হলো- ১. চলতি শিক্ষাবর্ষ থেকে থেকেই অধিভুক্ত সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিল করতে হবে, ২. দুই মাসের মধ্যে সব পরীক্ষার ফলাফল দিতে হবে, ৩. বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক কার্যক্রম ডিজিটালাইজেশন করতে হবে এবং ৪. ক্যাম্পাসে যানবাহন নিয়ন্ত্রণ ও রিকশা ভাড়া নির্ধারণ করতে হবে।

তারা বলেন, দাবি না মানা পর্যন্ত আমরা কঠোর অবস্থান চালিয়ে যাব। প্রশাসন কেন আমাদের কথা না শুনে সাত কলেজের প্রতি এতো ‘প্রেম’ দেখাচ্ছে সেটাই আমরা বুঝি না। আমরা প্রশাসনকে অনেকবার এই ব্যাপারে জানিয়েছি। কিন্তু প্রশাসন আমাদের কথা কানেই নিচ্ছে না। ডাকসু শুধু আমাদের আশ্বাস দিচ্ছে কিন্তু কোনো কাজ করছেন না।

আন্দোলনের মুখপাত্র মুহাম্মদ শাকিল মিয়া বলেন, সাত কলেজের কারণে আমরা প্রতিনিয়ত ভোগান্তির মুখে পড়ছি। শিক্ষকরা এমনিতেই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সামলাতে হিমশিম খাচ্ছেন, তার উপর সাত কলেজের এতো পরিমাণ শিক্ষার্থী তারা কিভাবে সামলাবেন? 
সাত কলেজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য অভিশাপ বলে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এ অধিভুক্তির কারণে সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা যেমন ভোগান্তির মুখে পড়েছে তেমনি ঢাবি শিক্ষার্থীরাও এর চরম মূল্য দিচ্ছে। তাই আমরা চাই অবিলম্বে সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিল করা হোক।

এমআইআর/আরআই
 

Islami Bank