• ঢাকা
  • শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর, ২০২০, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭
প্রকাশিত: অক্টোবর ৩০, ২০২০, ১২:৪৯ এএম
সর্বশেষ আপডেট : অক্টোবর ৩০, ২০২০, ১২:৪৯ এএম

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত পর্যালোচনার দাবি শিক্ষাবিদদের

জাগরণ ডেস্ক
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত পর্যালোচনার দাবি শিক্ষাবিদদের
প্রতীকী ছবি

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়ানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) দুপুরে এ সংক্রান্ত ভার্চুয়াল ব্রিফিংয়ে ছুটি বাড়ানোর ঘোষণা দেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। এই ছুটির পর পরিস্থিতি কিছুটা অনুকূলে আসা সাপেক্ষে সীমিত পরিসরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো খুলে দেয়ার চিন্তাভাবনা চলছে বলেও জানান শিক্ষামন্ত্রী। তবে শিক্ষাবিদরা বলছেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার আরো করোনা পরিস্থিতি ভালোভাবে পর্যবেক্ষণ করতে হবে।

বছরের শুরুতে জাঁকজমকপূর্ণ আয়োজনে একযোগে সারাদেশের শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেয়া হচ্ছে বেশ কয়েক বছর ধরে। বই উৎসব ঘিরে শিক্ষার্থীদের মাঝে তাই উৎসাহ-উদ্দীপনা থাকে তুঙ্গে।

করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে গত মার্চ মাস থেকে বন্ধ রয়েছে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। অনলাইনে পাঠদান চললেও একে একে বন্ধ করা হয় পিএসসি, জেএসসি এবং সবশেষ এইচএসসি পরীক্ষা। মাধ্যমিক পর্যায় পর্যন্ত নেয়া হয় অটোপাসের সিদ্ধান্ত। এ অবস্থায় এবারের বই উৎসব নিয়ে তৈরি হয় সংশয়।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ভার্চুয়াল ব্রিফিংয়ে এসে শিক্ষামন্ত্রী পরিষ্কার করলেন বিষয়টি। গত বছরগুলোর মতো এবার বই উৎসব হচ্ছে না জানিয়ে ডা. দীপু মনি বলেন, বিকল্প উপায়ে শিক্ষার্থীদের হাতে বই পৌঁছে দেয়া হবে।

ব্রিফিংয়ে চলমান ছুটি ১৪ নভেম্বর পর্যন্ত বাড়ানোর ঘোষণা দেন শিক্ষামন্ত্রী। তবে জানিয়ে দেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা নিয়ে চলছে নানা ভাবনা। পরিস্থিতি কিছুটা অনুকূলে এলে ১৪ নভেম্বরের পর থেকে সীমিত পরিসরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত নেয়া হতে পারে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের শিক্ষার্থীদের কেউ কেউ অটোপাস চাচ্ছেন বলে মন্তব্য করে দীপু মনি বলেন, পরীক্ষা ছাড়া তাদের মূল্যায়ন করা ঠিক হবে না। কারণ অনার্স শেষ করে কর্মজীবনে প্রবেশ করবে তারা। এ সময় অটোপাস দেয়া বলে কর্মজীবন ঝুঁকিতে পড়বে। তাদের পরীক্ষা দেয়ার প্রস্তুতি রাখার আহ্বান জানান তিনি।

এদিকে স্কুল খোলার বিষয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া জানান শিক্ষার্থীরা। কেউ বলছে, ঘরবন্দি জীবন শেষে কবে ফিরতে পারবেন বিদ্যালয়ের খোলা মাঠে, আবার কেউবা ভুগছেন করোনা আতঙ্কে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত আরও পর্যালোচনা করা প্রয়োজন। শিক্ষাবিদ ড. আবদুস সালাম বলেন, যেহেতু শীতে করোনার সেকেন্ড ওয়েভ আসার আশঙ্কা রয়েছে, তাই স্কুল খোলার আগে বিষয়টি ভালোভাবে পর্যালোচনা করা দরকার।

তিনি বলেন, সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষেত্রে উন্নত বিশ্বের দেশগুলোর পদক্ষেপ অনুসরণ করারও তাগিদ দেন তিনি।

এসকে