• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২১, ৩ বৈশাখ ১৪২৮
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২১, ০৫:৪৯ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২১, ০৫:৪৯ পিএম

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়

পরীক্ষার দাবিতে আমরণ অনশনে দুই শিক্ষার্থী

পরীক্ষার দাবিতে আমরণ অনশনে দুই শিক্ষার্থী

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় বর্ষের (৪৬তম ব্যাচ) চূড়ান্ত পরীক্ষার দাবিতে আমরণ অনশনে বসেছেন দুই শিক্ষার্থী।

রোববার (২৮ ফেব্রুয়ারি) বিকেল তিনটা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন প্রশাসনিক ভবনের সামনে তারা এ কর্মসূচি শুরু করেন।

অনশনে বসা দুই শিক্ষার্থী হলেন— প্রাণিবিদ্যা বিভাগের ৪৬তম ব্যাচের নুর হোসেন এবং একই ব্যাচের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের শিক্ষার্থী নাঈম শেখ।

অনশনে বসা শিক্ষার্থীরা জানান, তিন বছর যাবত একই বর্ষে থাকলেও এখনও চূড়ান্ত পরীক্ষা দিতে পারেননি তারা। ফলে বাধ্য হয়ে এ ধরনের কর্মসূচিতে বসেছেন। 

আগামী রোজার আগে যেকোনো মূল্যে তৃতীয় বর্ষের চূড়ান্ত পরীক্ষা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন তারা।

অনশনরত শিক্ষার্থী নুর হোসেন বলেন, “গত তিন বছর যাবত তৃতীয় বর্ষে পড়ে আছি। পরীক্ষার জন্য উপাচার্যকে স্মারকলিপি দিলে তিন কার্যদিবসের মধ্যে সিদ্ধান্ত জানানোর কথা বলেন তিনি। এক মাস হলেও কোনও উত্তর আসেনি। আজকে উপাচার্যের সাথে কথা বললে তিনি রাষ্ট্রের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে পরীক্ষা নিতে পারবেন না বলে জানিয়েছেন। বিশ্ববিদ্যালয় তথা রাষ্ট্র আমাদের কথা ভাবছে না, দিনের পর দিন আমাদের উপেক্ষা করা হচ্ছে।”

অনশনে থাকা ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের শিক্ষার্থী নাঈম শেখ বলেন, “আমরা মানসিকভাবে বিপর্যস্ত। একদিকে পরিবারের দায়িত্ব, আরেক দিকে অনার্স শেষ করতে না পারা। এমন পরিস্থিতিতে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছি। এখন আমরা যেকোনো মূল্যে ঈদের আগে পরীক্ষা শেষ করতে চাই। তা নাহলে এটা আমাদের জন্য চাপ হয়ে যাবে।”

এর আগে তৃতীয় বর্ষের চূড়ান্ত পরীক্ষার দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন শিক্ষার্থীরা। এছাড়া গত ২ ফেব্রুয়ারি চূড়ান্ত পরীক্ষা নেওয়ার দাবীতে উপাচার্য বরাবর একটি স্মারকলিপি দেওয়া হয়।

উপাচার্য তিন কার্যদিবসের মধ্যে সিদ্ধান্ত জানাবেন বললেও এক মাসেও কোন সিদ্ধান্ত দেন নি। আজ সিদ্ধান্ত জানতে উপাচার্যের সাথে কথা বললে তিনি রাষ্ট্রের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে পরীক্ষা নিতে পারবেন না বলে জানান। এরপরই আমরণ অনশনে বসেন শিক্ষার্থীরা।