• ঢাকা
  • বুধবার, ০৮ এপ্রিল, ২০২০, ২৫ চৈত্র ১৪২৬
প্রকাশিত: ডিসেম্বর ২৯, ২০১৯, ০১:৪০ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : ডিসেম্বর ২৯, ২০১৯, ০২:০০ পিএম

সকলের সহযোগিতা চাইলেন তাপস ও আতিক        

জাগরণ প্রতিবেদক
সকলের সহযোগিতা চাইলেন তাপস ও আতিক        
ধানমণ্ডির আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে শেখ ফজলে নূর তাপস ও আতিকুল ইসলাম আতিক -ছবি : জাগরণ

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন আওয়ামী লীগ ঘোষিত প্রার্থী ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস সকলের সহযোগিতা কামনা করে বলেছেন, আমি বিশ্বাস করি দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে কেউ কোনো সময় যাবে না। অপরদিকে বাকি কাজ শেষ করার চ্যালেঞ্জে সকলকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের আওয়ামী লীগ ঘোষিত প্রার্থী আতিকুল ইসলাম আতিক।

রোববার (২৯ ডিসেম্বর) দুপুরে রাজধানীর ধানমণ্ডির আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে তাদের নাম ঘোষণা হওয়ার পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় তারা এসব কথা বলেন।

ঢাকা সিটি করপোরেশনের বর্তমান মেয়র সাঈদ খোকন কে মনোনয়ন না দিয়ে তাকে মনোনয়ন দেয়ায় তাদের বিষয়ে কোনো বিভাজন সৃষ্টি হবে কি না এমন জানতে চাইলে তাপস নির্বাচনি সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। এ সময় তিনি ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মানুষের নাগরিক সেবা নিশ্চিত এ কাজ করবেন বলে জানান।

তাপস বলেন, সেবাগুলো জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছানোর জন্য, আমি স্মরণ করছি ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রথম মেয়র আনিসুল হককে। তিনি অল্প সময়ের প্রমাণ করেছিলেন যে সততা ও নিষ্ঠা আন্তরিকতার সাথে কাজ করা মানুষের দোরগোড়ায় সেবা পৌঁছানো সম্ভব। সেখান থেকে আমি অনুপ্রাণিত হয়েছি। সেটাকে পুঁজি করেই আমি কাজ করতে চাই।

তিনি আরও বলেন, আগামী মেয়াদে আমি এটুকু বলতে পারি, জনগণ যদি আমাকে নির্বাচিত করেছেন আমি আমার পূর্ণ সময় দক্ষিণ সিটি করপোরেশন আপামর জনগণের নাগরিক সুবিধা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে কাজ করে কাজ করে যাব। এ সময় সাঈদ খোকনের সহযোগিতা চান  কি না সাংবাদিকরা জানতে চাইলে তিনি বলেন সকলের সহযোগিতা চাই। সকলকে নিয়েই আমরা এই বৈতরণী পার করতে একসাথে মাঠে নামব।

তাপস বলেন, আমি আশা করব সংসদ সদস্য হিসেবে আমার এলাকার লোকজন যেমন আমাকে গ্রহণ করেছেন, ভালবেসেছেন, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন থেকেও মানুষ এভাবে আমাকে ভালবাসবে, সহায়তা করবে, ভোট দেবে।

আতিক তার তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বলেন, আমি ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন জনগণের সহযোগিতা চাই। আমরা সবাই মিলে সবার ঢাকা যেন গড়তে পারি। তিনি বলেন, গত ৯ মাসে আমি মেয়‌রের দায়িত্ব পাল‌নে এক মিনিটও বসে থাকিনি। চেষ্টা করেছি কাজ করার জন্য। আসুন সবাই মিলে একসঙ্গে কাজ করে আমাদের ঢাকা গড়ে তোলার চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করি।  

এর আগে সকালে ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আসেন আতিকুল ইসলাম ও ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস। পরে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের দলের পক্ষে সংবাদ সম্মেলন করে আতিক ও তাপসের নাম ঘোষণা করার সময়ও তারা সেখানে উপস্থিত ছিলেন। এ সময় তারা দুজনেই গণমাধ্যমকে হাত নেড়ে তাদের উপস্থিতির জানান দেন। ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপসের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন তার বড় ভাই ও যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ। দলীয় দুই প্রার্থীকেই বেশ উৎফুল্ল হয়ে সকলের সঙ্গে কথা বলতে দেখা যায়। 

এসময় আওয়ামী লীগ নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমেদ হোসেন, অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন, এসএম কামাল হোসেন, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ড. সেলিম মাহমুদ, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রিয়াজুল কবির কাওছার, আমিরুল ইসলাম মিলন প্রমুখ। 

এইচএস/একেএস