• ঢাকা
  • রবিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১১ ফাল্গুন ১৪২৬

জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা

মুজিববর্ষ
প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৭, ২০২০, ০৮:৪৭ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জানুয়ারি ১৭, ২০২০, ০৮:৪৭ পিএম

ইভিএমেও জাল ভোট দেয়া সম্ভব : ইসি রফিকুল

জাগরণ প্রতিবেদক
ইভিএমেও জাল ভোট দেয়া সম্ভব : ইসি রফিকুল
নির্বাচন কমিশনার (ইসি) রফিকুল ইসলাম - ছবি : সংগৃহীত

ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন ইভিএমেও জাল ভোট দেয়া সম্ভব বলে মন্তব্য করেছেন নির্বাচন কমিশনার (ইসি) রফিকুল ইসলাম। তিনি বলেছেন, এটা তখনই সম্ভব যখন কেউ ভোটকেন্দ্র দখল করে নেয়। এজন্য ভোটগ্রহণ কর্মকর্তাদের কঠোরভাবে দায়িত্ব পালন করতে হবে যাতে কোনও পক্ষই ভোটকেন্দ্র দখল করে নিতে না পারে। 

শুক্রবার (১৭ জানুয়ারি) রাজধানীর আজিমপুর গভর্নমেন্ট গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন ভোটগ্রহণ কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ কর্মশালায় তিনি এসব কথা বলেন। 

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন- ডিএসসিসি রিটার্নিং কর্মকর্তা আবদুল বাতেনের সভাপতিত্বে সিটি  নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রিজাইডিং কর্মকর্তা এবং সহকারী প্রিজাইডিং কর্মকর্তারা কর্মশালায় উপস্থিত ছিলেন।

৩০ জানুয়ারি (বৃহস্পতিবার) ঢাকার দুই সিটিতে ইভিএমে ভোট হওয়ার কথা রয়েছে। বিএনপিসহ বিরোধী দলগুলো শুরু থেকেই ইভিএমের ব্যাপারে আপত্তি জানিয়ে আসছে। তবে নির্বাচন কমিশন বারবার আশ্বস্ত করেছে, ইভিএমে জাল ভোট দেয়া সম্ভব নয়।

ইভিএমে আস্থা রাখতে আহ্বান জানিয়েছে বিরোধী দলগুলোর প্রতি।    

ইভিএমে কীভাবে জাল ভোট দেয়া যায় এ ব্যাপারে ইসি রফিকুল বলেন, ভোটার এসে আঙুলের ছাপ দিয়ে ব্যালট পেপার পেলো কিন্তু আরেকজন দৌড় দিয়ে ঢুকে তার ভোটটা দিয়ে দিলো। এ রকম যদি হয় তাহলে কিন্তু জাল ভোট দেয়া সম্ভব।

ইসি রফিকুল বলেন, যেসব স্কুলে সীমানা প্রাচীর নেই সেখানে অন্তত একটা বাঁশ দিয়ে হলেও সীমানা প্রাচীর নির্ধারণ করে দিতে হবে। 

তিনি ভোটগ্রহণ কর্মকর্তাদের উদ্দেশে বলেন, আপনার সাথে কিছু লোক থাকবে যারা হলো আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। আপনার দায়িত্ব হচ্ছে তাদের (আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী) দায়িত্ব দেয়া যাতে করে কোনও অবস্থাতেই অনুমতিবিহীন কেউ আপনার সীমানায় ঢুকতে না পারে।

চট্টগ্রাম-৮ আসনের উপ-নির্বাচনে ভোট পড়ার হারে হতাশা প্রকাশ করে এই কমিশনার বলেন, যদিও সেটা জাতীয় সংসদের উপ-নির্বাচন, এরকম ঢাকা শহরে হওয়ার কথা না। ভোট চলাকালে ততটুকু ভোটার, ততটুকু সাংবাদিক, ততটুকু পর্যবেক্ষক ঢুকতে দেবেন যাতে ভোটার কার্যক্রমে ব্যাঘাত না হয়। আমরা আইনানুগ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন করতে চাই।

সরস্বতী পূজার প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, কারও ধর্মীয় অনুভূতিতে কোনওরকম আঘাত দেয়ার জন্য সিটি করপোরেশন ভোটের তারিখ নির্ধারণ করা হয়নি।

এসএমএম

আরও পড়ুন