• ঢাকা
  • শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১১ আশ্বিন ১৪২৭
প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৫, ২০২০, ০৮:৫৫ এএম
সর্বশেষ আপডেট : জানুয়ারি ২৫, ২০২০, ০৮:৫৫ এএম

ঢাকা সিটি নির্বাচন 

আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সমন্বয় করবে মনিটরিং সেল

জাগরণ প্রতিবেদক
আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সমন্বয় করবে মনিটরিং সেল
ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের লোগো

ঢাকা দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনের সময় আইন শৃংখলা পরিস্থিতি তদারকি এবং নজরদারি করবে মনিটরিং সেল। এই সেল ভোটের দিন কমিশনকে ভোটের সার্বিক পরিস্থিতি অবগত করবে। এ কারণে মনিটরিং সেল গঠন করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।নির্বাচন কমিশন সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
 
ইসির উপসচিব (নির্বাচন পরিচালনা-২) আতিয়ার রহমান স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে বলা হয়, আগামী পহেলা ফেব্রুয়ারি ঢাকা উত্তর ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচন উপলক্ষে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি এবং বিভিন্ন আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতিনিধিদের সমন্বয়ে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে একটি আইন শৃঙ্খলা সমন্বয় ও মনিটরিং সেল গঠন করার জন্য সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে।

মনিটরিং সেল গঠন ও নির্দেশনা সংক্রান্ত চিঠি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব, মহাপুলিশ পরিদর্শক, বিজিবি/র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)/আনসার ও ভিডিপির মহাপরিচালক, জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের মহাপরিচালক ও আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের অতিরিক্ত মহাপুলিশ পরিদর্শককে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের মহাপরিচালকের নেতৃত্বে সেলে নিম্নবর্ণিত কর্মকর্তাগণ অন্তর্ভুক্ত হবেন। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের উপসচিব পদমর্যাদার নিম্নে নয় এমন একজন কর্মকর্তা, পুলিশ হেডকোয়াটার্সের পুলিশ সুপার/অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পদমর্যাদার একজন কর্মকর্তা, বিজিবি/র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)/আনসার ও ভিডিপি এর মেজর/ উপপরিচালক পদমর্যাদার একজন কর্মকর্তা এবং আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার/সহকারী পুলিশ সুপার পদমর্যাদার একজন কর্মকর্তা। নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের মনিটরিং সেল (কক্ষ নং-৪১০) ৫ম তলা, নির্বাচন ভবন, আগারগাঁও, ঢাকা-এ স্থাপিত উল্লিখিত সেলের কার্যক্রম হবে পহেলা ফেব্রুয়ারি ২০২০ তারিখ থেকে।
  
সেলের কর্মপরিধি সম্পর্কে চিঠিতে বলা হয়েছে- নির্বাচনের দিন আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সম্পর্কে নির্বাচন কমিশনকে অবগতকরণ, সেলে অন্তর্ভুক্ত সংশ্লিষ্ট সংস্থার প্রতিনিধি কর্তৃক নির্বাচন উপলক্ষে মোতায়েনকৃত আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের অবস্থান ও সার্বিক অবস্থা সম্পর্কে জ্ঞাতকরণ, সংস্থার নিজস্ব যোগাযোগ নেটওয়ার্কের মাধ্যমে কমিশনের নির্দেশনা তাৎক্ষণিকভাবে অবহিতকরণ, ভোটকেন্দ্র বা নির্বাচনী এলাকায় শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষার্থে বিভিন্ন আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর মধ্যে সমন্বয় সাধন, ইভিএমসহ বিভিন্ন নির্বাচনী সরঞ্জাম পরিবহণ, বিতরণ এবং ভোট গ্রহণ কাজে নিরাপত্তা বিধানের জন্য মোবাইল ও স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে নিয়োজিত আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর মধ্যে সমন্বয় করে রিটার্নিং অফিসারও প্রিজাইডিং অফিসারদের সহায়তা প্রদান। উল্লেখিত সেল যেন কার্যকর হয় এবং কমিশনকে যেন পরিস্থিতি অবহিত রাখা হয়, সে দিকে দৃষ্টি রাখার জন্য প্রধান নির্বাচন কমিশনার নির্দেশনা প্রদান করেছেন। নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে স্থাপিত উল্লেখিত সেলের প্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্ব পালনের জন্য একজন করে কর্মকর্তা প্রেরণের জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হয় ওই চিঠিতে।

এইচ এম/বিএস