• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৬ ফাল্গুন ১৪২৬

জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা

মুজিববর্ষ
প্রকাশিত: জানুয়ারি ৩০, ২০২০, ০৩:২৭ এএম
সর্বশেষ আপডেট : জানুয়ারি ৩০, ২০২০, ০৩:৪৩ এএম

উ. সিটিতে বেপরোয়া আ.লীগের বিদ্রোহীরা

৫৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থীর ওপর হামলা, আহত ৪

জাগরণ প্রতিবেদক
৫৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থীর ওপর হামলা, আহত ৪
হামলাকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থ নিতে পুলিশের সঙ্গে আলোচনারত কাউন্সিলর প্রার্থী জাহাঙ্গীর হোসেন যুবরাজ ও তার সমর্থকদের একাংশ- ছবি: বেলায়েত হোসেন বিপ্লব

ঢাকা উত্তর সিটির ৫৪ নম্বর ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগের এক বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের আকস্মিক হামলায় দলীয়ভাবে সমর্থন পাওয়া কাউন্সিলর পদপ্রার্থী জাহাঙ্গীর হোসেন যুবরাজের জেষ্ঠ্য পুত্র ও অপর ৩ জন কর্মী গুরুতর আহত হয়েছেন।

এ ঘটনায় আহত ৩ কর্মীকে নিকটবর্তী ইস্টওয়েস্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দ্রুত চিকিৎসা প্রদানের জন্য পাঠানো হয়েছে। এদিকে ওয়ার্ডের বিভিন্ন জায়গায় এই প্রার্থীর একাধিক নির্বাচনী প্রচারণা ক্যাম্পেও অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ প্রসঙ্গে কথা বলার জন্য একাধিকবার কল করা হলেও মুঠোফোনে সাড়া মেলেনি বিদ্রোহী প্রার্থী সোহেল শেখের।

বুধবার (২৯ জানুয়ারি) রাত আনুমানিক দেড়টার দিকে ঢাকা উত্তর সিটির ৫৪ নম্বর ওয়ার্ডস্থ পুরাতন বাজার এলাকায় এই হামলার ঘটনা ঘটে বলে নিশ্চিত করেছেন পুরাতন বাজারের নৈশ প্রহরী মোহাম্মদ মুস্তফা ও ঘটনার সন্নিকটে অবস্থিত একটি আবাসিক ভবনের সিকিউরিটি গার্ড মো. ইমরান আলী।

ঘটনার বর্ণনা প্রদানকালে আওয়ামী লীগ সমর্থিত কাউন্সিলর পদ প্রার্থী জাহাঙ্গীর হোসেন যুবরাজ দৈনিক জাগরণকে জানান, অন্যান্য দিনের মতই সারাদিনের প্রচারণা কার্যক্রম শেষে তার বাসভবনের বিপরীত পার্শ্বে অবস্থিত কাউন্সিলর অফিসের সামনে থেকে কর্মীদের বিদায় করা হয়। এর কিছু সময় পরেই রাসেল ও আলী নামের তার দুই কর্মীর একজন মুঠোফোনে চিৎকার করে জানাতে থাকেন যে, তাদের ওপর আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী সোহেল শেখের কর্মীরা ধারালো অস্ত্রসহ আকস্মিকভাবে হামলা চালিয়েছে।

তাৎক্ষনিকভাবে জাহাঙ্গীর হোসেন যুবরাজ ও তার জেষ্ঠ্যপুত্র লিমন কর্মীদের রক্ষা করতে পুরাতন বাজারের দিকে ছুটে গেলে ঘটনাস্থলে উপস্থিত বিদ্রোহী প্রার্থী সোহেলের আত্মীয় মো. নাসির ও তার ছোট ভাই নয়ন জাহাঙ্গীর হোসেন যুবরাজকে এলোপাথাড়ি কিল-ঘুষি মারতে শুরু করে। এসময় বাবাকে রক্ষাকরতে গিয়ে আঘাত পান লিমন। তবে অল্প কিছুক্ষণের মধ্যে কাউন্সিলর যুবরাজের প্রায় শতাধিক কর্মী সেখান থেকে এই কাউন্সিলর প্রার্থী ও তার ছেলে লিমনকে উদ্ধার করে নিরাপদ স্থানে নিয়ে আসে। 

যুবরাজ  বলেন, সুপরিকল্পিতভাবে এই হামলা চালানো হয়েছে আর সেখানে কারা ছিল তা রাস্তায় উপস্থিত প্রত্যেকটি নৈশ প্রহরী প্রত্যক্ষ করেছেন। আমি বিষয়টি প্রশাসনকে জানিয়েছি এবং দলের সর্বোচ্চ পর্যায়েও তা জানানো হবে। আমার একজন কর্মী আমার পরিবারের সদস্য।

পরে ঘটনাস্থলে তুরাগ থানার টহল পুলিশের একটি ইউনিট উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। বর্তমানে পুরো এলাকাজুড়ে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। এদিকে রাত থেকেই ৫৪ নম্বর ওয়ার্ডের নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদারে তাৎক্ষনিক পদক্ষেপ গ্রহণের কথা জানিয়েছে তুরাগ থানা কর্তৃপক্ষ।

জাহাঙ্গীর হোসেন যুবরাজ উত্তর সিটির ৫৪ নম্বর ওয়ার্ডের বর্তমানে নির্বাচিত কাউন্সিলর ও আসন্ন নির্বাচনে আওয়মী লীগের দলীয় সমর্থন নিয়ে একই পদে নির্বাচন করতে যাচ্ছেন। 

এসকে